Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 24, 2018

Bangla Govt to run 100 tourist properties

Bangla Govt to run 100 tourist properties

The State Tourism Department has set a target to develop and run as many as 100 properties in different parts of Bengal.

This was announced by the Tourism Minister recently at the inauguration of a tourism fair named ‘Weekend Wonders’, organised jointly by the department and the merchant body, BCCI.

He said that the work in this direction has already started – arrangements have been made for running more than 40 such properties. The respective district magistrates are also helping the department in this initiative.

Many of these properties would serve the purpose of weekend tourism, which has become very popular in recent years because of the widespread development of infrastructure – roads, bridges – and transport – AC and non-AC buses on several routes – by the Trinamool Congress Government.

A number of weekend spots have been emerging in the State. Bengal has a wide variety of tourist destinations that include the hills, the seas and the forests. There are also places of historical and religious interest.

Digha and the Sunderbans have always been a favourite weekend spots. Now, Purulia and Jhargram are catching up. The minister also mentioned that a bridge is coming up on the Hatania Doania river to reduce travel time to Bakkhali, which is another major destination for sea lovers, and a stopover for nearby destinations like Henry’s Island, Frasergunj and Sagar Island.

Source: Millennium Post


নভেম্বর ২৪, ২০১৮

বাংলা জুড়ে ১০০টি পর্যটন কেন্দ্র তৈরী করার লক্ষ্য রাজ্য সরকারের

বাংলা জুড়ে ১০০টি পর্যটন কেন্দ্র তৈরী করার লক্ষ্য রাজ্য সরকারের

বাংলা জুড়ে ১০০টি পর্যটন কেন্দ্র তৈরী করার লক্ষ্য রাজ্য সরকারের। পর্যটন দপ্তর এবং বিসিসিএল-এর উদ্যোগে আয়োজিত ‘উইকেন্ড ওয়ান্ডার্স’ নামক পর্যটন মেলার উদ্বোধনে একথা ঘোষণা করেন পর্যটন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, ইতিমধ্যেই ৪০টি পর্যটন কেন্দ্র তৈরীর কাজ শুরু হয়েছে এবং স্থানীয় জেলাশাসকরা এতে খুব সাহায্য করছেন।

ইউকেন্ড বা সপ্তাহান্তে কাছাকাছি কোথাও বেড়াতে যাওয়ার ছিল হয়েছে আজকাল। নতুন যেসব পর্যটন কেন্দ্র তৈরী করা হবে, সেগুলি এই নতুন উইকেন্ড ট্যুরিজমকে মাথায় রেখেই বানানো হবে। গত সাত বছরে রাজ্যের সার্বিক উন্নয়ন হয়েছে; তৈরী হয়েছে নতুন রাস্তা, সেতু। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নের ফলে মানুষ আজকাল বেড়াতেও যাচ্ছেন আগের তুলনায় অনেক বেশি।

বাংলায় পর্যটনের বিরাট সম্ভাবনা রয়েছে। পাহাড় যেমন আছে, তেমনই রাজ্যে আছে সমুদ্র এবং জঙ্গল। এছাড়া, ঐতিহাসিক ও ধর্মীয় পীঠস্থানও আছে রাজ্যে। দীঘা ও সুন্দরবন সবসময়েই রাজ্যবাসীর ভ্রমণতালিকার শীর্ষে। পুরুলিয়া ও ঝাড়গ্রামও জনপ্রিয় হচ্ছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, হাতানিয়া দোয়ানিয়া নদীর ওপর একটি সেতু তৈরী হচ্ছে। খুব শীঘ্রই কাজ শেষ হয়ে যাবে। হেনরিজ আইল্যান্ড, ফ্রেজারগঞ্জ ও সাগর দ্বীপ যেতে হলে বকখালি হয়েই যেতে হয়। তাই পর্যটকদের খুব সুবিধে হবে।