Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


January 19, 2019

Committee on EVMs formed after Brigade rally

Committee on EVMs formed after Brigade rally

The leaders of the various parties who attended today’s rally at Brigade Parade Grounds, met for a brief meeting at Soujanya guest house. After the meeting, they addressed the press.

It was decided in today’s meeting that a committee will be formed which will prepare a draft on EVMs, which will be submitted to the Election Commission. This committee will comprise Akhilesh Yadav, Arvind Kejriwal, Abhishek Manu Singhvi and Satish Misra.

As per the draft, parties will write to the Election Commission. They may also meet during the Parliament Session later this month, said Mamata Banerjee.

Chandrababu Naidu said, “This meeting will change the fate of the country. At this moment, the country is in distress, democracy is under attack. We have to save the country and democracy. BJP is playing divisive politics everywhere. People are with us. Regarding the future activities, we will take decisions together.”

Akhilesh Yadav said, “We may run our respective political parties following our ideologies but I would thank Mamata Ji for bringing us together on the same stage. BJP has disappointed the people of the entire nation. They have made promises which they could never fulfil. This is why I am warning the the common people, do not fall in their trap.”

Satish Misra said, “People want to oust this government. We have to be alert so that they do not resort to malpractices involving EVMs like the last elections. All parties will talk to Election Commission about this. “

Abhishek Manu Singhvi said “There are only a few countries left which use EVMs for elections; then why is India not thinking about reintroducing paper ballots? Some provinces in America, and developed countries like Holland, France, Germany returned to paper ballots after experimenting with EVMs. But since there is little time left for the general elections, our demand is that VVPATs must be present in all EVMs. 50% of the EVMS have to be cross-checked. Next week we will go to Election Commission to discuss about this.”

Mamata Banerjee commented, “We have decided that a committee will formed under the leadership of Akhilesh Yadav, Satis Misra, Arvind Kejriwal and Abhishek Manu Singhvi who will create a draft on EVM to be placed before the Election Commission. In the same manner other political parties will do the same. This is because it is very important to save the democracy of the country. If we get a chance we will meet at the Parliament.”

Farooq Abdullah said, “We want a transparent election. It is very important. I have fear regarding the EVMs. If elections are won fraudulently, will will never accept it.”

 


জানুয়ারী ১৯, ২০১৯

ব্রিগেড সমাবেশের পরই ইভিএম নিয়ে কমিটি গঠন বিরোধী দলগুলির

ব্রিগেড সমাবেশের পরই ইভিএম নিয়ে কমিটি গঠন বিরোধী দলগুলির

আজ ব্রিগেডের মহাসমাবেশের পর সৌজন্যে সকল বিরোধী নেতার সাথে চা চক্রে মিলিত হন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তাঁরা।

বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় যে একটি কমিটি গঠন করা হবে, যারা ইভিএম নিয়ে নির্বাচন কমিশনের জন্য একটি খসড়া তৈরী করবেন। এই কমিটিতে থাকবেন অখিলেশ যাদব, সতীশ মিশ্র, অরবিন্দ কেজরিওয়াল, অভিষেক মনু সিংভি। কমিটির খসড়া অনুযায়ী বাকি দলগুলিও একসঙ্গে চিঠি লিখে আবেদন করবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, দরকার পড়লে সংসদেও দেখা করবে সব দল।

ফারুক আবদুল্লা বলেন, আমরা স্বচ্ছ নির্বাচন চাই, এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের ইভিএম মেশিন নিয়ে ভয় আছে। যদি ছলনা করে নির্বাচন জেতা হয়, আমরাই কখনই মেনে নেব না।

অখিলেশ যাদব বলেন, দল হয়তো আমরা নিজের মত চালাই কিন্তু দেশের স্বার্থে সকলকে এক মঞ্চে এনেছেন বলে মমতাজি কে ধন্যবাদ জানাই। সমগ্র দেশকে নিরাশ করেছে বিজেপি। এমন স্বপ্ন দেখিয়েছে যা পূরণ করতে পারে নি, তাই সাধারণ মানুষকে সাবধান করছি, তারা যাতে এদের প্ররোচনায় পা না দেন।

সতীশ মিশ্র বলেন, মানুষ এই সরকারকে উৎখাত করতে চায়। গত নির্বাচনের মত ইভিএম খারাপ করে যাতে ভোট বদল করতে না পারে সেদিকে আমাদের সজাগ থাকতে হবে। সব দল মিলে আমরা এই কথা নির্বাচন কমিশনকে জানাব।

অভিষেক মনু সিংভি বলেন, যখন সারা পৃথিবীতে মাত্র হাতে গোনা কয়েকটি দেশ আছে যেখানে ইভিএম যন্ত্র ব্যবহার করা হয়, তাহলে ভারতবর্ষ কেন ব্যালটের মাধ্যমে ব্যবস্থা শুরু করছে না? আমেরিকার কিছু প্রদেশ, হল্যান্ড, ফ্রান্স, জার্মানির মত উন্নত দেশও প্রথমে ইভিএম পরীক্ষা করে পুনরায় ব্যালটে ফিরে গেছে। কিন্তু, যেহেতু, হাতে সময় খুব কম, তাই আমাদের সকলের দাবী সমস্তও ইভিএম যন্ত্রে ভিভিপ্যাট থাকা জরুরী। ৫০ শতাংশ যন্ত্রের ক্রসচেক হওয়া দরকার। আমরা সামনের সপ্তাহ থেকে নির্বাচন কমিশনে এই বিষয় নিয়ে যাব।

চন্দ্রবাবু নাইডু বলেন, এই বৈঠক দেশ বদলাবে। এই মুহূর্তে আমাদের দেশ সঙ্কটে, গণতন্ত্র বিপন্ন। আমাদের দেশ বাঁচাতে হবে, গণতন্ত্র বাঁচাতে হবে। বিজেপি সব জায়গায় বিভাজনমূলক কাজ করছে। মানুষ আমাদের সঙ্গে আছে। আমরা সকলে মিলে আগামী দিন কীভাবে এগোব, সেই সিদ্ধান্ত নেব।