Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


January 3, 2019

Making Kolkata clean and green – KMC forms a new department

Making Kolkata clean and green – KMC forms a new department

For a more integrated approach towards turning Kolkata into a clean and green city and at the same time, to reduce the level of air pollution, the three Kolkata Municipal Corporation (KMC) departments of Urban Forestry, Project Management Unit (PMU) and Parks & Gardens have been brought under a single umbrella.

While announcing this decision, the mayor of KMC reasoned that since the PMU’s work is mostly related to waterbodies, which in turn is linked to green issues, it makes perfect sense to link it with the other two. The civic body is taking a slew of measures for a clean and green Kolkata, and the merger of the three sections will speed up work in this regard.

In a related development, the mayor has held meetings with the Railways and the Kolkata Port Trust, which are custodians of substantial amounts of land in the city, to allow the KMC to take up plantations in vacant plots (which they would not put to use for any commercial purpose) under their ownership.

There is vacant land in areas like Majerhat that is owned by the Railways, and in Kidderpore and the Nimtala riverside area in north Kolkata, under the KoPT.

The KMC will take the opinions of experts to ensure planned and scientific plantation.

Source: Millennium Post

 


জানুয়ারী ৩, ২০১৯

পরিবেশরক্ষায় নতুন বিভাগ চালু পুরসভার

পরিবেশরক্ষায় নতুন বিভাগ চালু পুরসভার

শহরে আরও সবুজ বাড়াতে বন দপ্তরের আদলে নতুন বিভাগ খুলল কলকাতা পুরসভা। পুরসভার খাতায়-কলমে যার শহুরে নাম ‘আরবান ফরেস্ট্রি।’ এত দিন পুরসভায় এই ধরনের কোনও বিভাগ ছিল না।

এই নতুন বিভাগ খোলার কথা জানান মেয়র। এত দিন এই শহরের গাছ এবং পার্ক সংক্রান্ত বিষয়গুলি দেখভাল করত উদ্যান বিভাগ। কিন্তু এ বার শহরজুড়ে সবুজায়ন করার লক্ষ্যে পুরোপুরি আলাদা একটা বিভাগের অধীনে কাজ করবে পুরসভা।

এর ফলে দায়িত্ব বাড়ল কলকাতা পুরসভার উদ্যান বিভাগের মেয়র পারিষদের। ‘আর্বান ফরেস্ট্রি’ নামে পুরসভার একটি নতুন বিভাগের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তাঁকে। একই সঙ্গে তার হাতে এসেছে পুরসভার প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট ইউনিট (পিএমইউ) বিভাগের দায়িত্বও।

মেয়র বলেন, ‘শহরে পরিবেশে দূষণের মাত্রা কমানো কলকাতা পুরসভার অন্যতম লক্ষ্য। বিষয়টি যেহেতু পরিবেশ এবং উদ্যানের সঙ্গে যুক্ত, তাই এই পরিকল্পনা করা হয়েছে।’

শহরের পরিবেশে দূষণের মাত্রা কমাতে কলকাতার নাগরিকদের বাড়ির ছাদে বাগান করার আবেদন জানান তিনি। শহরে আর্বান ফরেস্ট্রি গড়ে তোলার জন্য পুরসভার একাধিক পরিকল্পনার কথা জানান তিনি। শহরজুড়ে সবুজের পরিমাণ বাড়াতে এবং এ কাজে পৃথক ভাবে তদারকির জন্য আলাদা একটি বিভাগ তৈরী হওয়ায় কাজেরও অনেক সুবিধে হবে বলে মনে করে পুরসভা।

শহরের পরিবেশে সবুজের পরিমাণ বাড়ানোর জন্যই নাগরিকদের কাছে এই আবেদন করা হচ্ছে। যাঁর যতটুকু ক্ষমতা, সেই অনুযায়ী ছাদে বাগান করা গেলে শহরে পরিবেশ দূষণের সমস্যা অনেকটাই হ্রাস পাবে বলে মনে করেন মেয়র। বাজার থেকে আনা সব্জির টুকরো গাছের সার হিসেবে ব্যবহারের পরামর্শ দেন মেয়র।

সৌজন্যেঃ এই সময়