Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


January 22, 2019

Mirik to be developed as tourist destination

Mirik to be developed as tourist destination

Mirik, a picturesque town in the Hills, will be developed as a tourist destination. This is one of Chief Minister’s dream projects for the Hills. Already, plans are afoot to build the requisite infrastructure.

A sunrise point near Mirik College, Youth Hostel near Mirik Lake, home stay facilities in nearby villages, 100-bed hospital are some of the initiatives being taken.

The tourism minister said, “We want Mirik to feature prominently on the tourism map. The work is in progress.”

As Darjeeling and Kalimpong are becoming congested, tourists are looking for newer destinations to travel to in the Hills. Sitong, Lava, Rheshyap, Chatakpur have already become very popular. CM has similar plans to develop Mirik.

The municipal chairman of Mirik said, “We are developing the infrastructure as per CM’s guidance. We will develop the roads, drinking water supply and drainage system also.”

Source: Ei Samay


জানুয়ারী ২২, ২০১৯

মিরিককে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা মুখ্যমন্ত্রীর

মিরিককে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা মুখ্যমন্ত্রীর

মিরিককে মডেল পর্যটন কেন্দ্র করতে চান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আগ্রহে প্রশাসন ইতিমধ্যে সেখানে পর্যটন পরিকাঠামো গড়ে তোলার জন্য সমীক্ষা শুরু করেছে। মিরিক কলেজের পাশে সানরাইজ পয়েন্ট, মিরিক লেকের কাছে ইয়ুথ হস্টেল, পাহাড়ি গ্রামগুলিতে হোম স্টে তৈরির সমীক্ষা চলছে এখন। ১০০ শয্যার হাসপাতাল তৈরির কাজও হাতে নেওয়া হয়েছে সেখানে।

পর্যটনমন্ত্রী বলেছেন, “মিরিকে আমরা পর্যটনের জন্য বেশ কিছু কাজ হাতে নিয়েছি। সেই কাজের দ্রুত অগ্রগতি হচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী মিরিকে মডেল পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তুলতে চান।”

ক্রমশ ঘিঞ্জি হয়ে ওঠা দার্জিলিং এবং কালিম্পংয়ের উপরে পর্যটকদের ভরসা ক্রমশ কমছে। তাঁরা এখন নতুন পর্যটন কেন্দ্র চান। ফলে সিটং, রিসপ, লাভা, চটকপুরেই এখন পর্যটকদের ভিড় বেশি। গজলডোবার মতোই মিরিকে মুখ্যমন্ত্রীর একই পরিকল্পনা।

মিরিকের পুরপ্রধান বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শেই এখানে পর্যটন পরিকাঠামো গড়ে তোলার কাজ শুরু হয়েছে। রাস্তা, পানীয় জল এবং নিকাশি ব্যবস্থাও ঢেলে সাজানো হবে।”

সৌজন্যেঃ এই সময়