Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


January 14, 2019

Bangla CM proposes internships for college passouts to balance teacher shortage

Bangla CM proposes internships for college passouts to balance teacher shortage

Bangla Chief Minister Mamata Banerjee today chaired a review meeting on education sector today. The meeting was attended by vice-chancellors of 30 universities. Principals of several colleges were also present. After the meeting, the CM said that it was a productive discussion.

The CM said that there are many areas where there are many teachers. On the other hand, there are areas where the number of teachers is less. There is a need to maintain balance.

To meet this challenge, she proposed that Class V be moved to primary level. Since there are many teachers at primary level, this move will mitigate the problem to an extent.

For areas, like Sundarbans, Jangalmahal or Dooars, the CM proposed appointing college passouts as interns to solve the issue of availability of teachers. They will get a certificate. Based on performance, they will also get priority during teachers’ recruitment.

“The interns will be given an honourarium of Rs 2,000 (for primary level schools) and Rs 2,500 (for secondary level schools),” the CM announced, adding that finer details of this proposal would need to be worked out.

 


জানুয়ারী ১৪, ২০১৯

শিক্ষকদের ঘাটতি কমাতে ইন্টার্নশিপের প্রস্তাব মুখ্যমন্ত্রীর

শিক্ষকদের ঘাটতি কমাতে ইন্টার্নশিপের প্রস্তাব মুখ্যমন্ত্রীর

আজ নবান্ন সভাঘরে শিক্ষাক্ষেত্রে পর্যালোচনা বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। এই বৈঠকে ৩০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এবং বিভিন্ন কলেজের অধ্যক্ষরা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠকের পর শিক্ষকদের ঘাটতি প্রসঙ্গে দুটি প্রস্তাব দেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, যেহেতু প্রাথমিক শিক্ষক প্রচুর আছে, পঞ্চম শ্রেণীকে যদি প্রাথমিকের মধ্যে নিয়ে আসা যায়, শিক্ষকের অভাব কিছুটা মিটবে।

দুই, তিনি আরও বলেন, কিছু অঞ্চল আছে – যেমন সুন্দরবন এলাকা, ঝাড়গ্রাম এলাকা, পশ্চিম মেদিনীপুরের কিছু অঞ্চল, ডুয়ার্স অঞ্চল – যেখানে শিক্ষক কম। এই সব জায়গায় কলেজ থেকে পাস করার পর, উত্তীর্ণদের যদি দু’বছর করে ইন্টার্ন হিসেবে কাজে লাগানো হয়, তাহলে তারা একটা করে শংসাপত্র পাবে। তাদের কাজ ভালো হলে, রিভিউয়ের মাধ্যমে তারা শিক্ষক নিয়োগে কিছুটা অগ্রাধিকার পাবে। এর ফলে আমাদের শিক্ষকের সমস্যা মিটবে।

প্রাথমিক শিক্ষার জন্য যোগ্যতা হবে স্নাতক, মাধ্যমিক বা উচ্চমাধ্যমিকের ক্ষেত্রে যোগ্যতা অনার্স সহ স্নাতক বা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রী। আর, প্রাথমিক স্তরে পড়ালে ২ হাজার টাকা ও মাধ্যমিক স্তরে পড়ালে আড়াই হাজার করে দেওয়া হবে।