Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 12, 2018

BJP indulges in divisive politics during elections: Mamata Banerjee

BJP indulges in divisive politics during elections: Mamata Banerjee

Chief Minister Mamata Banerjee today inaugurated a Jagadhatri Puja at Posta in Burrabazar. The puja is organised by Posta Bazar Merchant Chamber of Commerce.

Trinamool Congress MP Sudip Bandyopadhyay, Shashi Panja, Minister of State for Women Development and Child Welfare, Smita Bakshi, local MLA, and the Commissioner of Kolkata Police were also present at the function.

Highlights of the Chief Minister’s speech:

  • This is a cosmopolitan area. People from all walks of life – labourers, traders, businessmen – organise this Puja together. I love coming to this Puja every year.
  • Tomorrow is Chhath Puja. My best wishes to all. Our government has declared a state holiday tomorrow. Day after tomorrow, we have declared a sectional holiday for those who are celebrating.
  • For us, politics does not mean reaching out to people only during elections. We stand beside them throughout the year, in times of happiness as well as grief.
  • I want to ask them, what have they done for Burrabazar area. What have they done for Posta, and the Hindi-speaking people?
  • BJP and CPI(M) go to the people only during elections. We are with the people all the time, for 365 days a year, even during festivals. My whole team comes here.
  • They play divisive politics during elections. They seek votes from the Hindi-speaking people. Why will they vote for you? So many of our labourers live in other States. People of other States also live here in Bengal.
  • I want to ask the BJP why are people from UP and Bihar being forced to leave Gujarat? They are also expelling Bengalis from Assam. They resort to religious politics only during elections.
  • Hindu traditions are thousands of years old. BJP was formed only 20-22 years ago. They are misleading people in the name of religion.
  • We respect all religions. We take people of all communities and religions along while celebrating festivals. We worship Durga,
  • we worship Kali. We also celebrate Diwali and Chhath Puja. This is our tradition. We do not need lectures from BJP.
  • They are talking of Rath Yatra. These raths have all five-star luxuries. All show-off. Earlier they used to seek votes in the name of Ram.
  • They have produced fake leaders in the country. The trading community has been affected by demonetisation and GST. People are being intimidated with threats of income tax/CBI raids.
  • No one is happy today. Business is suffering. Traders are not happy. During demonetisation I had visited Burrabazar several times.
  • They are asking for GST slips even for buying batasha worth a few pennies. They have lost their minds.
  • They have spoilt the name of every agency in the country. No one raised a finger at the RBI, ED or CBI before. They have destroyed the country.
  • Even today there were Maoist attacks in Chhattisgarh on polling day. They are in power there for 15 years and yet they could address the naxal problem. In Bengal, we have solved the issue in two years after coming to power.
  • They only spread fake news and hateful comments on social media, to incite violence. Their party office has become like a five-star hotel, while common people are suffering.
  • I want our labourers, farmers, youths, women to be happy. They are intimidating people so much, one day people will teach them a lesson.

নভেম্বর ১২, ২০১৮

নির্বাচনের সময় ভাগাভাগির রাজনীতি করে বিজেপি: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নির্বাচনের সময় ভাগাভাগির রাজনীতি করে বিজেপি: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আজ বড়বাজারের পোস্তায় জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধন করেন। এই পুজোর আয়োজক হল পোস্তা বাজার মার্চেন্ট চেম্বার অফ কমার্স।

স্থানীয় বিধায়ক, সাংসদ ছাড়াও, কলকাতা পুলিশের কমিশনার উপস্থিত ছিলেন এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে।

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের কিছু অংশঃ

  • এটা একটা কসমোপলিটান জায়গা, হিন্দীভাষী সমস্ত ভাই বোনেরা মিলে এই পুজোর আয়োজন করেন। মজুর, ব্যাবসায়ী, বণিক সম্প্রদায়, যেই হোক, সকলে মিলে এই পুজো করেন। সকলকে স্বাগত জানায়, তাই, আমরা এই পুজোকে ভালোবাসি।
  • আগামীকাল ছট পুজো, সকলকে শুভেচ্ছা জানাই। হিন্দীভাষীদের জন্য সরকার ২দিন ছুটি ঘোষণা করেছে। এই ছুটি দেওয়া হয়েছে যাতে আপনারা ভালো করে পুজো করতে পারেন।
  • আমরা স্বভাব এরকম না যে, শুধু ভোটের আগে এসে ভোট চাইব আর অন্য বিপদ আপদের সময় পাশে থাকব না।
  • ওদের জিজ্ঞেস করুন, আপনারা বড়বাজারের জন্য কি করেছেন? পোস্তার জন্য কি করেছেন? হিন্দীভাষীদের জন্য কি করেছেন? বাঙালীদের জন্যই বা কি করেছেন? রাজস্থানে রাজস্থানীদের জন্য কি করেছেন? বিহারে বিহারীদের জন্য কি করেছেন? গুজরাটে গুজরাটিদের জন্য কি করেছেন?
  • বিজেপি আর সিপিএম শুধু ভোটের সময় আসে, আর বছরে ৩৬৫ দিন আমরা পাশে থাকি, এমনকি উৎসবের সময়েও।
  • বিজেপি বলে, আপনি হিন্দীভাষী, তাই বিজেপিকে ভোট দিন। কেন দেবে? হিন্দীভাষীদের জন্য বিজেপি কি করেছে? এখানে ভিন রাজ্যের অনেক মজুর থাকেন। বিজেপিকে যদি জিজ্ঞেস করি, আপনারা গুজরাট থেকে বিহারবাসী, উত্তর প্রদেশবাসীদের কেন বার করে দিয়েছেন?
  • বিজেপি কখনও গুজরাট থেকে বিহারীদের বার করে দিচ্ছে, কখনও অসম থেকে বাঙালীদের বার করে দিচ্ছে। এটাই ওদের স্বভাব।
  • ভোটের সময় ওদের মাথায় শুধু ধর্মের কথা আসে। হিন্দূ ধর্ম কি আজ শুরু হয়েছে? হিন্দু ধর্ম হাজার হাজার বছর আগে শুরু হয়েছে। বিজেপির জন্মই তো ২০-২২ বছর আগে। আজ দেশে ধর্মের নামে মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে।
  • আমরা সকলকে নিয়ে দুর্গাপুজো করি। জগদ্ধাত্রী পুজো করি সকলকে নিয়ে। ক’দিন পর নবী দিবসও পালন করব। আমরা দেওয়ালি উদযাপন করি। আমরা নবরাত্রি পালন করি, আমি ছট পুজাতেও যাই। এটাই আমাদের পরম্পরা। এটা আমরা বিজেপির থেকে শিখি নি। এটা আমি আমাদের দেশের লোকেদের থেকে শিখেছি।
  • ওরা নির্বাচনের সময় এলে বলবে, যে, হিন্দিভাষীরা আমাদের ভোট দিন। রথের নামে ফাইভ-স্টার হোটেলে ঘুরবে। এই সব চালাকি আমরা অনেক দেখেছি।
  • কখনও ওরা রামের নাম করে ভোট চায়। যে রাম দুর্গাপুজা করেছিল, আমরা তো সেই দুর্গাপুজাই করি।
  • আপনারা যারা ব্যবসায়ী আছেন এখানে অনেকে বিজেপিকে ভোট দিতেন আগে। কিন্তু নোটবন্দীর পরে, জিএসটি লাগু হওয়ার পরে, আপনারা কি এখনও মন থেকে মানছেন না যে ব্যবসার হাল খারাপ হয়ে গেছে। বড়বাজার, পোস্তার আজকে কী অবস্থা হয়েছে! নোটবন্দীর পর আমি তো নিজে এসে বড়বাজারে এসে খোঁজ নিয়েছিলাম যে ব্যবসায়ীদের কি ক্ষতি হয়েছে।
  • আর এখন তো ওরা কয়েক পয়সার বাতাসা কিনতেও জিএসটি-র স্লিপ চাইছে। ওদের মাথা খারাপ হয়ে গেছে।
  • দেশের সব ক’টা সংস্থার ক্ষমতা ওরা কেড়ে নিচ্ছে। আগে কেউ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক, ইডি বা সিবিআই এর দিকে হাত তুলতো না, কিন্তু ওরা সেটাও নষ্ট করে ফেলেছে।
  • আজকেও ছত্তিসগড়ে ভোটের দিনে মাওবাদী হামলা হয়েছে। ওখানে ওরা ১৫ বছর ক্ষমতায় থেকেও মাওবাদী সমস্যা মেটাতে পারেনি। আমরা ক্ষমতায় আসার দু’বছরের মধ্যে এই সমস্যাগুলো সমাধান করে ফেলেছিলাম।
  • ওরা শুধু জানে সোশ্যাল মিডিয়ায় মিথ্যে খবর ছড়িয়ে দাঙ্গা বাঁধাতে। যখন সাধারণ মানুষ একের পর এক সমস্যায় পড়ছে, ওরা ফাইভ স্টার হোটেলের মত পার্টি অফিস বানাচ্ছে।
  • আমি চাই আম জনতা, চাই আমাদের শ্রমিক, কৃষক ভাইয়েরা, যুবক যুবতীরা ভালো থাকুক যেটা ওরা চায় না। আজকে যখন ওরা সবাইকে ভয় দেখাচ্ছে, একদিন মানুষ ওদের যোগ্য জবাব দেবে।