Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 16, 2018

Monetary compensation for wild animal attack victims increased

Monetary compensation for wild animal attack victims increased

The Bangla Government has increased the one-time monetary compensation for victims of wild animal attacks. The details have been published by the State Forest Department.

In case of such a death, the family of the victim will receive an ex gratia of Rs 4 lakh. This is double the previous amount.

The family of the victim would have to apply in the proper format. After verifying all details of the incident, the government would award the compensatory amount to the family or if applicable, any other legal heir of the victim.

For incidents of maiming too due to wild animal attacks, the compensations have been increased. For the loss of 40 to 60 per cent of vision, the amount is now Rs 59,100. For loss of vision more than 60 per cent, the amount of compensation would be Rs 2 lakh. The victim’s family would have to submit a declaration from a government hospital or dispensary regarding the percentage loss of vision.

The third category of victims for whom the compensation has been increased is those admitted to a hospital after an attack. For hospitalisation of less than a week, the compensation would be Rs 4,300, and for more than a week, it would increase to Rs 12,700.

Source: Sangbad Pratidin


নভেম্বর ১৬, ২০১৮

বন্যপ্রাণী হামলায় অর্থ সাহায্য বাড়ল

বন্যপ্রাণী হামলায় অর্থ সাহায্য বাড়ল

বন্যপ্রাণীর আক্রমণে মানুষের প্রাণহানি বা জখমের ক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণের অর্থসাহায্য বাড়াল রাজ্য সরকার। ক্ষতিপূরণ কোনও কোনও ক্ষেত্রে দ্বিগুণ হয়েছে।

জঙ্গলের কোনও প্রাণীর আক্রমণে কোনও ব্যাক্তির মৃত্যু হলে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার চার লক্ষ টাকা অর্থ সাহায্য পাবেন। সেক্ষেত্রে মৃত্যুর কারণ জানিয়ে উপযুক্ত ব্যাক্তির শংসাপত্র লাগবে। কেবল তখনই নিহতের পরিবার বা যোগ্য আইনী উত্তরাধিকারী অনুদান বা ক্ষতিপূরণের টাকা পাবেন।

একইভাবে কোনও ব্যাক্তির অঙ্গহানি হলে, সেক্ষেত্রেও ক্ষতিপূরণের অর্থসাহায্য বাড়ানো হয়েছে। দৃষ্টিশক্তি ৪০ শতাংশ থেকে ৬০ শতাংশ নষ্ট হলে মিলবে ৫৯ হাজার ১০০ টাকা। দৃষ্টিশক্তি তার বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হলে মিলবে ২ লক্ষ টাকা। এক্ষেত্রে দৃষ্টিশক্তি হারানোর কারণ ও রোগী কতটা সেই ক্ষমতা হারিয়েছে, সে ব্যাপারে সরকারি হাসপাতাল বা ডিসপেনসারি থেকে চিকিৎসকের শংসাপত্র দরকার।

বন্যপ্রাণীর হামলায় কোনও ব্যাক্তি যদি জখম হন ও তাঁকে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করতে হয়, সেক্ষেত্রে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে হামলার শিকার ব্যাক্তিকে। বন দপ্তরের বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, এক সপ্তাহের কম সময়ের জন্য হাসপাতালে ভর্তি থাকলে, জখম ব্যাক্তি পাবে চার হাজার তিনশো টাকা। এক সপ্তাহের বেশী ভর্তি থাকলে সেই ব্যাক্তিকে সরকার দেবে ১২ হাজার ৭০০টাকা।

সৌজন্যঃ সংবাদ প্রতিদিন