Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 19, 2018

Mission Nirmal Bangla – A huge success

Mission Nirmal Bangla – A huge success

On the occasion of World Toilet Day, Mission Nirmal Bangla was launched in Bengal on November 19, 2013. As of May, 2018, 11 districts, 33,261 villages, 2,621 Gram Panchayats and 255 blocks in the State have become ODF. This scheme has received international acclaim from the UN as well.

Nadia was the first district in India to be declared ODF. All the districts in Bengal will be ODF much ahead of the schedule which is October 2, 2019. Five districts in Bengal that are yet to be declared ODF are Purulia, Jhargram, North Dinajpur, Jalpaiguri and Gorkhaland Territorial Administration (GTA). Fourteen districts have formally been declared as ODF while in three other districts, work has been completed but the formal declaration has not happened yet.

In the last five years, 58,73,540 household toilets have been constructed. 1,608 community sanitary complexes have been constructed as well. Scientific solid and liquid waste management has been a focus area during the construction of these toilets.

The fund allocation for this project has seen an increase in the last couple of years. In 2012-13, Rs 254 crore was allocated for this project. In 2017-18, the amount increased to Rs 2661 crore, despite a reduction in Centre’s share from 75:25 to 60:40.

500 additional community sanitary complexes will be built in rural areas. Solid and liquid waste management programmes will be taken up at additional 500 gram panchayats. Thrust is being given on awareness programmes as well.


নভেম্বর ১৯, ২০১৮

নির্মল বাংলা মিশন – গ্রাম বাংলার অহংকার

নির্মল বাংলা মিশন – গ্রাম বাংলার অহংকার

২০১৩ সালের ১৯শে নভেম্বর বিশ্ব শৌচাগার দিবস উপলক্ষে এই রাজ্যে নির্মল বাংলা মিশন চালু হয়। মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে গত পাঁচ বছরে ৮টি জেলা, ২,২৬৬টি গ্রাম পঞ্চায়েত, ২৮,১০২টি গ্রাম নির্মল হয়েছে। এই উদ্যোগ পেয়েছে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি।

নদীয়া জেলা দেশের প্রথম নির্মল জেলা ঘোষিত হয়। ২০১৮ সালের মে মাস পর্যন্ত আরও ১০টি জেলা নির্মল জেলা ঘোষিত হয়েছে। গত পাঁচ বছরে ৫৮,৭৩,৫৪০ বাড়িতে শৌচাগার নির্মাণ হয়। জনসাধারণের জন্য ১,৬০৮টি শৌচাগার তৈরী হয়েছে। এই শৌচাগার নির্মাণে বিজ্ঞানসম্মত ভাবে কঠিন ও তরল বর্জ্য ব্যবস্থাপনার দিকেও নজর রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলার সমস্ত জেলাকেই ডিসেম্বর মাসের মধ্যে নির্মল জেলা ঘোষণা করা হবে। পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, উত্তর দিনাজপুর, জলপাইগুড়ি ও জিটিএ অঞ্চল এখনও নির্মল জেলা হয়নি। ১৪টি জেলাকে ইতিমধ্যেই নির্মল ঘোষণা করা হয়েছে। ৩টি জেলায় কাজ সম্পূর্ণ, আনুষ্ঠানিক ঘোষণা বাকি।

গত কয়েক বছরে এই প্রকল্পে বরাদ্দ সমানে বেড়েছে। ২০১২-১৩ সালে ২৫৪.৪১ কোটি টাকা থেকে ২০১৭-১৮ সালে এই বাবদ বরাদ্দ বেড়ে হয় ২৬৬১.২৫ কোটি টাকা। যদিও, এই সময়ে এই প্রকল্পে কেন্দ্রের অনুদান ৭৫:২৫ থেকে কমে ৬০:৪০য়ে এসে দাঁড়িয়েছে।

গ্রাম পঞ্চায়েত অঞ্চলে ৫০০টি অতিরিক্ত সাধারণ শৌচাগার তৈরীর পরিকল্পনা দপ্তরের। এছাড়া আরও ৫০০টি গ্রাম পঞ্চায়েত অঞ্চলে কঠিন ও তরল বর্জ্য ব্যবস্থাপনার দিকেও নজর দেওয়া হবে। নজর দেওয়া হচ্ছে প্রচারমূলক কর্মসূচিতেও।