Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 20, 2018

‘Ahare Bangla’ 2018 kicks off today

‘Ahare Bangla’ 2018 kicks off today

Ahare Bangla, the annual food festival organised by Bangla Government, is going to be organised from November 20 to 25 at the Newtwn Mela Ground.

The ‘Bangiyo Khadya Utsav’, or ‘Bengali Food Festival’, as the official byline of the festival goes, becomes a magnet for gourmets form across Kolkata and its suburbs for these few days.

The week-long food extravaganza also has an Android app of its own.

Food will be served from 6 PM to 9 PM on November 20, and from 12 noon to 9 PM from November 21 to 25. Lunch will be from 12 noon to 3 PM, snacks from 3 PM to 6 PM and dinner from 6 PM to 9 PM.

Organised by the Bengal Government’s Animal Resources Development, Ahare Bangla has become immensely popular over the years. This year more people are expected, and so the festival is being organised in an area having a dining capacity of approximately 800 people at a time.

Another crucial fact about the festival is that the restaurateurs have to source their ingredients from government organisations (as selected by the festival authority). This is part of the State Government’s efforts to promote its various wings.


নভেম্বর ২০, ২০১৮

বিশ্বের খাবার বাংলার দরবারে, আজ শুরু হচ্ছে 'আহারে বাংলা'

বিশ্বের খাবার বাংলার দরবারে, আজ শুরু হচ্ছে 'আহারে বাংলা'

রাজ্য সরকার দ্বারা আয়োজিত বার্ষিক খাদ্য উৎসব ‘আহারে বাংলা’ বা বঙ্গীয় খাদ্য উৎসব এবার চতুর্থ বর্ষে পা দিল। এবার এই উৎসব শুরু হবে ২০শে নভেম্বর এবং চলবে ২৫শে নভেম্বর পর্যন্ত। ‘আহারে বাংল আয়োজিত হবে নিউটাউন মেলা প্রাঙ্গনে।

খাদ্য উৎসব উপলক্ষে একটি অ্যানড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশনও তৈরী করা হয়েছে। এই লিঙ্কে ক্লিক করে ডাউনলোড করুন এই অ্যাপটি।

এই উৎসবের উদ্বোধন হবে আজ সন্ধ্যা ৬টায়। খোলা থাকবে রাত ৯টা পর্যন্ত। বাকি পাঁচ দিন মেলা প্রাঙ্গনে মধ্যাহ্নভোজ মিলবে দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৩টে পর্যন্ত, বিকেলের স্ন্যাক্স পাওয়া যাবে বিকেল ৩টে থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত এবং নৈশভোজ পাওয়া যাবে সন্ধ্যা ৬টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।

প্রাণীসম্পদ বিকাশ দপ্তর আয়োজিত ‘আহারে বাংলা’ গত কয়েক বছরের অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে। এবছর আশা করা যায় আরও বেশী ভোজনরসিকের সমাগম হবে এই খাদ্য মেলায়। তাই, এবারে ৮০০ মানুষ বসতে পারেন এমন জায়গায় এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে।