Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


May 19, 2018

Over 3,000 km of rural roads being repaired and widened by State Govt

Over 3,000 km of rural roads being repaired and widened by State Govt

Rural roads are essential as means of communication and are vital for the development of the socio-economic condition of people. This is especially true of rural regions where as they lack other means of transport.

Bengal is one of the best-performing states in terms of rural connectivity, a fact acknowledge by the Central Government itself. A lot of it is the result of work done by the Public Works Department (PWD) in convergence with the MGNREGA scheme. In the case of MGNREGA, Bengal is the best performer, both in terms of the number of person-days created and expenditure (with respect to the salaries given to workers).

Now, the PWD has taken up, on the instruction of Chief Minister Mamata Banerjee, the repairing and widening, as well as maintaining of roads till now looked after by the Zilla Parishads. This has been done as the department is specialised in handling this type of work. In fact, for the same reason, the Zilla Parishads were willing as well in handing over the work to the department.

Combining all regions of Bengal, the department will take up 331 roads, totalling a length of 3,366 km. Of these, work for 200 km has already been completed, and that for another 2,000 km is going on at a fast pace.

Besides repairing, all roads which are 3 metres (m) wide are being widened to 5 m. Keeping the heavy rains and floods in some regions in mind, both concrete and bituminous roads are being built. The State Government has allotted Rs 2,700 crore from the Budget’s Plan expenditure. More will be allotted as and when needed.

Another fact that needs to be mentioned is that West Bengal Highway Development Corporation (WBHDC) will be completing the widening (from two lanes to four) and strengthening of Delhi Road by the end of June. It was one of the major tasks taken up by the corporation for improving road connectivity in the State. The total length being widened and strengthened is 40 km, which is being completed in two phases of 20 km in each.

The Delhi Road serves as an important link, connecting Durgapur Expressway with its parallel thoroughfare, the Grand Trunk Road.

Roads are the gateways to development and progress. Under the leadership of Mamata Banerjee, Bengal is surging ahead like never before.

Source: Khabar 365 Din


মে ১৯, ২০১৮

জেলা পরিষদের ৩৩৬৬ কিমি নতুন রাস্তা তৈরী করেছে রাজ্য

জেলা পরিষদের ৩৩৬৬ কিমি নতুন রাস্তা তৈরী করেছে রাজ্য

প্রশাসনিক পর্যালোচনা বৈঠক থেকেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন গ্রামীণ রাস্তাগুলির মানোন্নয়নের। গ্রামীণ আর্থ-সামাজিক বিকাশে গ্রামীণ রাস্তার গুরুত্ব মাথায় রেখে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার জেলা পরিষদের রাস্তাগুলি নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব দিয়েছিল পূর্ত দপ্তরের ওপর। উত্তর (দার্জিলিং জেলা ছাড়া) ও দক্ষিণবঙ্গ মিলিয়ে নতুন ৩৩১টি রাস্তা তুলে দেওয়া হয়েছে পূর্ত দপ্তরের হাতে। এই নতুন ৩৩১টি নতুন রাস্তার বিস্তার সব মিলিয়ে ৩৩৬৬ কিলোমিটার। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় এর মধ্যেই ২০০ কিমি রাস্তা তৈরীর কাজ শেষ করেছে রাজ্য সরকার। জোরকদমে কাজ চলছে আরও প্রায় ২০০০ কিমি নতুন রাস্তার কাজ। উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের সমস্ত জেলা থেকেই নতুন রাস্তা তৈরীর আবেদন জমা পড়েছে পূর্ত দপ্তরে।

তাঁর মধ্যে দক্ষিণবঙ্গের কয়েকটি জেলা থেকে ২০০ কিমির বেশি নতুন রাস্তার আবেদন জমা পড়েছে। এর মধ্যে রয়েছে, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পশ্চিম বর্ধমান, বীরভূম, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর ও পুরুলিয়া। অতিবৃষ্টি ও বন্যার মতো প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কথা মাথায় রেখে কংক্রিট ও পীচ, দুই ধরনের রাস্তাই তৈরী করছে রাজ্য সরকার।

তিন মিটার প্রস্থের ১কিমি রাস্তা নির্মাণে রাজ্য সরকারের খরচ পড়ছে প্রায় ১কোটি ৮০ লক্ষ টাকা। একই দৈর্ঘ্য ও প্রস্থের পীচের (বিটুমিন) রাস্তা নির্মাণ করতে খরচ পড়ছে প্রায় ৯০ লক্ষ থেকে ১ কোটি টাকার মতো। জেলা পরিষদের নতুন এই রাস্তাগুলি নির্মাণ ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য রাজ্য সরকার ইতিমধ্যে পরিকল্পনা খাতের বরাদ্দ অর্থ থেকে ২৭০০ কোটি টাকা অনুমোদন দিয়েছে। মূলত গ্রামীণ যোগাযোগ ব্যবস্থার মান বাড়াতেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। জেলা পরিষদের নতুন রাস্তাগুলি চওড়া হবে ৩ মিটারের মতো। সেগুলিকে ৫মিটার মতো চওড়া করা হবে বলে পূর্ত দপ্তরের খবর।

চলতি অর্থবর্ষেও গ্রামীণ রাস্তা নির্মাণে কেন্দ্রীয় প্রশংসা অর্জন করেছে রাজ্য সরকার। প্রসঙ্গত, প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনার তৈরী রাস্তাগুলি এতদিন রক্ষণাবেক্ষণ করত জেলা পরিষদগুলি। তবে সঠিক পরিকাঠামো ও তহবিল না থাকায় সেই রাস্তাগুলির রক্ষণাবেক্ষণ না হয়ে রাস্তাগুলি খারাপ হয়ে পড়ত। টাই, রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেলা পরিষদের রাস্তাগুলি পূর্ত দপ্তরের হাতে তুলে দেওয়ার।