Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


May 18, 2018

It is a constitutional crisis in Karnataka: Mamata Banerjee

It is a constitutional crisis in Karnataka: Mamata Banerjee

Calling the political chaos in Karnataka as a ‘constitutional crisis’, West Bengal Chief Minister Mamata Banerjee raises question on the alleged “horse-trading” in the State.

“In Karnataka,this is a constitutional crisis. The governor is a constitutional post. he cannot act like a political guide. Why he is not calling the Congress-JD(S) when they have already submitted letter with the adequate numbers. A governor should act abiding by the Constitution and not by his personal choice. I endorse all Opposition leaders’ views in this regard. I support Mayawati Ji, Stalin, Chandrababu Naidu and Akhilesh’s opinion on this issue,” said Bengal chief minister Mamata Banerjee.

Hinting at the Karnataka crisis, she said: “Of late, there are so many instances of horse trading. If this becomes a rule, a bad precedence will be set in the country. It will not only destroy democracy, but the country as well.”

 


মে ১৮, ২০১৮

কর্ণাটকে ঘোড়া কেনাবেচা, ক্ষোভ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

কর্ণাটকে ঘোড়া কেনাবেচা, ক্ষোভ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

কর্ণাটকে বিজেপিকে সরকার গড়তে ‘‌সুযোগ’‌ দেওয়ায় ক্ষুব্ধ বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বৃহস্পতিবার নবান্নে সাংবাদিকদের এ সম্পর্কে এক প্রশ্নের জবাবে মমতা বলেন, ‘‌কোটি কোটি টাকা দিয়ে ঘোড়া কেনাবেচা যেভাবে চলছে, তার নিন্দা করছি। কারোরই একে সমর্থন করা উচিত নয়। কোনও একটি দল ধনী হতে পারে। আবার কোনও দল গরিব হতে পারে। কিন্তু গণতন্ত্রে সবাই সমান।‌ কুমারস্বামীকে ডাকল না কেন!‌’‌

এভাবে ‘‌হর্স ট্রেডিং’‌–‌এর সম্ভাবনাকে তীব্র ভাষায় নিন্দা করে মমতা এদিন বলেন, ‘‌এটা চলতে থাকলে তা দেশকে সর্বনাশের দিকে ঠেলে দেবে। গণতন্ত্র, সংবিধান বলে কিছু থাকবে না। বিজেপি–‌র বিরুদ্ধে একটি বিশেষ ঘটনায় হর্স ট্রেডিংয়ের কথা আমি বলছি না। এটা সারা দেশে চালু হয়েছে। নিন্দাযোগ্য। তবে হ্যাঁ, কিছু কিছু রাজ্যের ক্ষেত্রে বৈষম্য হয়েছে। যেমন, গোয়া। ওখানে কংগ্রেস একক সংখ্যাগরিষ্ঠ ছিল। আমি মনে করি, গণতান্ত্রিক নিয়ম, সংবিধান মেনে চলা উচিত। একটি দল ক্ষমতায় আসে। পরে নাও থাকতে পারে। কিন্তু কেউ যদি সংবিধান লঙ্ঘন করে, তা অবশ্যই নিন্দার।’‌

এদিনও তিনি জানিয়েছেন, বিজেপি–র বিরুদ্ধে দেশ জুড়ে ‘‌ফেডারেল ফ্রন্ট’‌ গড়ার পক্ষপাতী। তাঁর বক্তব্য, ‘‌সব আঞ্চলিক দলগুলিকে নিয়ে ফেডারেল ফ্রন্ট গড়তে চাই।’‌ দেশের এই পরিস্থিতিতে কর্ণাটকের সমস্যা মেটাতে রাষ্ট্রপতির কাছেই ‘‌গণতন্ত্র’‌ ও ‘‌সংবিধান’‌ রক্ষার আবেদন করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একইসঙ্গে কর্ণাটকে কুমারস্বামীসহ জয়ীদের অভিনন্দনও জানিয়েছেন তিনি।