Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


May 26, 2018

Kazi Nazrul Islam given due recognition by Maa, Mati, Manush Government

Kazi Nazrul Islam given due recognition by Maa, Mati, Manush Government

Like every year, West Bengal Government is celebrating the the birth anniversary of the Rebel Poet Kazi Nazrul Islam in a befitting manner all across the State.

In the past seven years, the government has taken several initiatives to preserve the legacy of the great poet. From renovating his house at Churulia to setting up ‘Nazrul Tirtha’ – the ‘Bidrohi Kobi’ has been given due recognition by the Maa, Mati, Manush Government.

Some initiatives of the Bengal Government to preserve the legacy of Kazi Nazrul Islam:

  • Under the Trinamool Government, the state-of-art cultural complex Nazrul Tirtha has been set up at Rajarhat New Town.
  • A digital library on Kazi Nazrul Islam at Nazrul Tirtha was inaugurated in December, 2017. The digital library is the first-of-its-kind in Bengal. All the books of Nazrul that have become out-of-print and are lying in different libraries in Kolkata have been digitised in the first phase.
  • Kazi Nazrul University has been set up in Asansol, Paschim Bardhaman.
  • The first Greenfield Airport of India at Andal has been named after Kazi Nazrul Islam.
  • The State Government has dedicated a chair to Kazi Nazrul Islam at Calcutta University.
  • Nazrul Academy was set up in 2012.
  • Nazrul Mancha, the Open Air Theatre at Rabindra Sarobar, was renovated into a state-of-art auditorium.
  • The West Bengal government took up repair and maintenance work of Kazi Nazrul Islam’s ancestral house at Churulia in Bardhaman district.
  • An archive on Kazi Nazrul Islam at Grace Cottage, a single-storey building in Nadia’s Krishnagar where the poet had lived between 1926 and 1928, is in the offing.
  • Since 2011, the Government has been celebrating the birth and death anniversaries of the Rebel Poet in a befitting manner.

 


মে ২৬, ২০১৮

কাজী নজরুল ইসলামকে যথাযথ সম্মান জানিয়েছে তৃণমূল সরকার

কাজী নজরুল ইসলামকে যথাযথ সম্মান জানিয়েছে তৃণমূল সরকার

অন্যান্য বছরের মত, এবছরও বাংলাজুড়ে পালিত হচ্ছে কাজী নজরুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী। যথাযথ মর্যাদার সাথে রাজ্য সরকার ‘বিদ্রোহী কবি জন্মবার্ষিকী পালন করছে এবছরও।

গত সাত বছরে রাজ্য সরকারের তরফে নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে কাজী নজরুল ইসলামের ঐতিহ্য, ওনার সৃষ্টিকে সংরক্ষিত করার জন্য। চুরুলিয়াতে কবির বাড়ি সংস্কার থেকে শুরু করে নিউটাউনে নজরুল তীর্থ গড়ে তোলা – বিভিন্ন উদ্যোগের মাধ্যমে বিদ্রোহী কবিকে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেছে মা, মাটি, মানুষের সরকার।

দেখে নিন নজরুলের স্মৃতি সংরক্ষণের জন্য তৃণমূল সরকারের নেওয়া কিছু উদ্যোগ:

  • নিউটাউনে ‘নজরুল তীর্থ’ নামে একটি সাংস্কৃতিক কেন্দ্র গড়ে তুলেছে রাজ্য সরকার।
  • ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে নজরুলকে নিয়ে একটি ডিজিটাল লাইব্রেরি উদ্বোধন হয় নজরুল তীর্থে। রাজ্যে এই রকম লাইব্রেরি এই প্রথম তৈরী হল। প্রাথমিকভাবে এখানে অন্যান্য লাইব্রেরিগুলিতে পরে থাকা নজরুলের ‘আউট অফ প্রিন্ট’ বইগুলির ডিজিটাল সংস্করণ রাখা থাকছে।
  • পশ্চিম বর্ধমান জেলার আসানসোলে কাজী নজরুল ইসলামের নামাঙ্কিত একটি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপিত হয়েছে।
  • অন্ডালে দেশের প্রথম গ্রিনফিল্ড বিমানবন্দরটি কাজী নজরুল ইসলামের নামে নামাঙ্কিত করা হয়েছে।
  • কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে কাজী নজরুল ইসলামের নামে একটি চেয়ার স্থাপন করা হয়েছে।
  • ২০১২ সালে তৈরী করা হয় নজরুল একাডেমি।
  • রবীন্দ্র সরোবরের সন্নিকটে অবস্থিত ‘নজরুল মাছের সংস্কার করা হয়।
  • বর্ধমান জেলায় চুরুলিয়াতে কাজী নজরুল ইসলামের আদিবাড়ি সংস্কার করা হয়।
  • নদীয়া জেলার কৃষ্ণনগরে ১৯২৬-২৮ সালে গ্রেস কটেজে অনেকটা সময় কাটিয়েছিলেন কাজী নজরুল ইসলাম। সেই বাড়িটিরও সংস্কার করা হচ্ছে।

২০১১ সাল থেকে রাজ্য সরকারের উদ্যোগে যথাযথ মর্যাদার সাথে কাজী নজরুল ইসলামের জন্ম ও মৃত্যুবার্ষিকী পালিত করা হয়।