Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


May 1, 2018

Ensuring employability is a cornerstone of State Govt’s policy for workers

Ensuring employability is a cornerstone of State Govt’s policy for workers

Under the Trinamool Congress Government, the Labour Department has been proactive in endeavouring towards the betterment of the conditions of workers – both organised and unorganised – in Bengal.

Not just providing social service benefits, the department is active too in ensuring employability of workers, be it through the creation of an online Employment Bank or providing financial assistance to those yet to get jobs or giving skill development training. The latter two are linked to the Employment Bank programme.

A brief overview of these programmes is given below:

Employment Bank

An online bridge between employers and employees; it was inaugurated by Chief Minister Mamata Banerjee on July 26, 2012

  • Joint initiative by the Labour and Information Technology Departments, with active support from the Higher Education and Technical Education & Training Departments
  • Both employers and job-seekers need to register on the website
  • After logging in, while registered employers have the option of looking for suitable employees from among the registered job-seekers, the latter have the option of looking for suitable jobs from among those advertised.
  • As of January 2018, 26,66,322 job-seekers and 503 employees have registered, with the latter posting a total of 1,45,415 jobs

 

Yuvashree

  • Scheme for extending financial assistance of Rs 1,500 per month to 1 lakh most needy job-seekers enrolled with the Employment Bank
  • Scheme implemented through specially designed online application and payments made through the method of direct benefit transfer (DBT)
  • 95,595 beneficiaries getting the monthly assistance
  • Since inception, 1,50,635 beneficiaries have received the monthly assistance

 

Skill development for registered job-seekers and domestic workers

  • 6,332 job-seekers registered with the Employment Bank given skill training
  • For financial year 2018-19, norms and the methodology of implementation simplified, and emphasis given on placements
  • 9,478 job-seekers registered for taking mock tests, and 14,997 given special coaching
  • For providing skill training to domestic workers, 497 Prashikshan Shibirs (‘training camps’) organised in all the 73 Employment Exchanges, where 12,137 have been trained
  • Participants at the Shibirs paid stipend of Rs 100 per day

 

The Employment Bank programme is thus a commendable effort both in providing jobs and providing training for jobs. With increasing number of people registering and with more and more employers accessing the database, combined with the skill training being provided, the Employment Bank has become a cornerstone in the Bengal Government’s efforts towards ensuring gainful employment for all.

 

 

 


মে ১, ২০১৮

রাজ্যের বেকারদের জন্য তৎপর শ্রমদপ্তর

রাজ্যের বেকারদের জন্য তৎপর শ্রমদপ্তর

২০১১ সালে বিপুল জনসমর্থনের সাহায্যে তৃণমূল সরকার রাজ্যের দায়িত্বভার গ্রহণ করে। এরপর থেকে রাজ্যের সকল বেকার ব্যাক্তিকে কাজে নিযুক্ত করতে দায়বদ্ধ রাজ্য সরকার। কর্মসংস্থানের জন্য তারা নিয়েছে একাধিক কর্মসূচী।

এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্কঃ

২০১২ সালের ২৬ জুলাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উদ্বোধন করেন এই এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্কের। এটি একটি অনলাইন মাধ্যমে নিয়োগকর্তা ও চাকুরি প্রার্থীর মধ্যে। এটি রাজ্য সরকারের নিজস্ব একটি অনলাইন জব-পোর্টাল এবং শ্রম দপ্তরের একটি অনন্য ই-গভর্ন্যান্স প্রয়াস। এর মাধ্যমে একটি আলোচনার মাধ্যম তৈরী হয়েছে যার ফলে চাকুরি প্রার্থীদের কাজের সুযোগ বাড়বে। ২০১৮ সালের জানুয়ারি পরজন্য ২৬৬৬৩২২জন চাকুরি প্রার্থী নথিভুক্ত হয়েছেন এই পোর্টালে। ৫০৩ জন নিয়োগকর্তা এখনও পর্যন্ত নথিভুক্ত হয়েছেন ও তারা ১৪৫৪১৫টি কর্মখালির হদিস দিয়েছেন ওই পোর্টালে।

যুবশ্রীঃ

এমপ্লয়মেন্ট ব্যাঙ্কে নাম নথিভুক্ত করা ১ লক্ষ চাকুরি প্রার্থীকে মাসিক ১৫০০ টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়। উদ্বোধন থেকে এখনও পর্যন্ত এই যুবশ্রী প্রকল্পে ১৫০৬৩৫জন সুবিধা পেয়েছেন। বর্তমানে ৯৫৫৯৫জন চাকুরি প্রার্থী প্রতি মাসে এই আর্থিক অনুদান পেয়ে থাকেন। এই প্রকল্প সম্পূর্ণ অনলাইন নির্ভর। ২০১৮-১৯ সালের বাজেটে এই বাবদ ১৫১.২৭ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।

নথীভুক্ত চাকুরিপ্রার্থী ও গৃহস্থ শ্রমিকদের দক্ষতা উন্নয়নঃ

এই উদ্দেশ্যে অনেকগুলি প্রকল্প নেওয়া হয়েছে। এই পর্যন্ত ৬৩৩২ জনকে দক্ষতা উন্নয়নের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। আগামী আর্থিক বর্ষের জন্য নিয়মাবলী অনেক শিথিল করা হয়েছে ও নিযুক্তিকরনে জোর দেওয়া হয়েছে। ৯৪৭৮ জন চাকুরি প্রার্থী মক টেস্টের জন্য নির্বাচিত হয়েছে। ১৪৯৯৭ জনকে বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া গৃহস্থ শ্রমিকদের প্রশিক্ষণ দিতে ৪৯৭টি প্রশিক্ষণ শিবির করা হয়েছে। এই শিবিরে যোগদানকারীদের রোজ ১০০ টাকা করে দেওয়া হত। ২০১৮-১৯ সালের বাজেটে এই বাবদ ৭.৫০ কোটি টাকা ধার্য করা হয়েছে।