Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


December 21, 2018

Bangla Govt to set up a Blockchain Centre

Bangla Govt to set up a Blockchain Centre

The Bangla Government will set up a Blockchain Centre in collaboration with the Indian Statistical Institute (ISI). The State Information Technology & Electronics (IT&E) Department will be heading the project.

A senior official of the department announced this on the sidelines of the two-day Global Blockchain Congress that kicked off at Biswa Bangla Convention Centre on December 18.

The centre of excellence is likely to come up by the end of this financial year (2018-19). It will be imparting advice and training in blockchain technology to all stakeholders.

Almost 50 per cent of the banks are expected to use this disruptive technology by 2020 and there is a huge transformation expected to take place in the non-financial sector as well within next few years. Naturally, the official said, blockchain is expected to create a significant impact in the job market.

Brazil is the only country that has an academy dedicated to teaching about and researching on blockchain. Hence, this institute in Kolkata will place India on the world map.

The State Government has taken a focussed approach towards leveraging blockchain technology to establish Bangla as a frontrunner in becoming a hub for emerging technology. It may be mentioned in this connection that the government is also setting up a centre of excellence on quantum computing in collaboration with the University of Calcutta.


ডিসেম্বর ২১, ২০১৮

ব্লকচেন কেন্দ্র তৈরী করবে রাজ্য তথ্যপ্রযুক্তি দপ্তর

ব্লকচেন কেন্দ্র তৈরী করবে রাজ্য তথ্যপ্রযুক্তি দপ্তর

ব্লকচেন কেন্দ্র তৈরী করবে রাজ্য তথ্যপ্রযুক্তি দপ্তর। ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিসটিকাল ইনস্টিটিউট এর সহযোগিতায় এই ব্লকচেন সেন্টার অফ এক্সসেলেন্স গড়তে চলেছে রাজ্য সরকার। সমস্ত অংশীদারদের পরামর্শ এবং প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে এই কেন্দ্রে।

বিশ্ব বাংলা কনভেনশন সেন্টারে ইতিমধ্যেই দু’দিনব্যাপী ‘গ্লোবাল ব্লকচেন কংগ্রেস’ অনুষ্ঠিত হয়। সেই অনুষ্ঠানেই রাজ্য তথ্যপ্রযুক্তি ও ইলেক্ট্রনিক্স দপ্তরের এক উচ্চাধিকারিক বলেন, চলতি আর্থিক বর্ষের শেষেই এই ব্লকচেন কেন্দ্র তৈরী হবে। আমরা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গেও আলোচনা চালাচ্ছি কোয়ান্টাম কম্পিউটিঙের ওপর সেন্টার অফ এক্সসেলেন্স তৈরী করার জন্য।

এই মুহূর্তে সারা বিশ্বে একমাত্র ব্রাজিলে ব্লকচেন সংক্রান্ত প্রতিষ্ঠান আছে। কলকাতার এই ‘সেন্টার অফ এক্সেলেন্স’ সারা বিশ্বে দ্বিতীয়। রাজ্য সরকার বাংলাকে আধুনিক প্রযুক্তি হাবে পরিণত করতে ব্লকচেন প্রযুক্তি নিয়ে বিভিন্ন কাজ করছে।

আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলির মধ্যে প্রায় ৫০ শতাংশ ব্যাঙ্ক আগামী ২০২০ সালের মধ্যে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করতে চলেছে। আর্থিক ছাড়া অন্যান্য ক্ষেত্রেও কয়েক বছরের মধ্যে প্রযুক্তি ব্যবহারের মধ্যে বিপুল পরিবর্তন আসতে চলেছে। ব্লকচেন প্রযুক্তি আগামী দিনে কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা নিতে চলেছে কারণ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই প্রযুক্তির চাহিদা তুঙ্গে।