Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


December 7, 2018

Bangla Govt doubles allocation for rural libraries

Bangla Govt doubles allocation for rural libraries

The State is going about at a rapid pace with the development of government libraries. This was apparent from the detailed reply given by the Library Services Minister to a question asked in the Assembly on November 22.

He said that the government has allotted Rs 6 crore in financial year (FY) 2018-19 for the infrastructural and book-related development of 2,000 rural libraries. This is double the amount allotted in FY 2017-18, which was Rs 3.2 crore, for 1,455 rural libraries.

As many as 34,000 rare books have been digitised. The work of digitisation of books at the district level is also getting executed with equal responsibility.

In the current financial year, he said, books worth Rs 11.43 lakh were bought for different libraries. At the same time, steps have been taken to fill up the vacant posts of librarians.

It may be mentioned that the condition of libraries in the State has improved a lot in the past seven years, when the Trinamool Congress has been in power. The minister informed the Assembly that the budget of the Library Department has gone up from Rs 14.88 crore in 2010-11 to Rs 50 crore in 2018-19.

Source: Millennium Post


ডিসেম্বর ৭, ২০১৮

দু’হাজার গ্রামীণ লাইব্রেরীর উন্নয়নে ৬ কোটি দেবে সরকার

দু’হাজার গ্রামীণ লাইব্রেরীর উন্নয়নে ৬ কোটি দেবে সরকার

রাজ্যবাসীর মধ্যে বইয়ের প্রতি ভালোবাসা বাড়াতে এবং পড়ার অভ্যাস পুনরুদ্ধার করতে স্থানীয় লাইব্রেরীগুলির মানোন্নয়নে উদ্যোগী হল সরকার। বিধানসভার প্রশ্নোত্তর পর্বে গ্রন্থাগার মন্ত্রী ঘোষণা করেন, চলতি আর্থিক বছরে বাংলার গ্রামীণ লাইব্রেরীগুলির উন্নয়নে আর্থিক সাহায্য করবে রাজ্য সরকার।

তিনি বলেন, এই ধরনের প্রায় দু’হাজার লাইব্রেরীকে যথাক্রমে ৩০ হাজার, ৩৫ হাজার এবং ৪০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হবে। সবমিলিয়ে এই খাতে ছয় কোটি টাকা খরচ হবে। তবে রাজ্য সরকারের অনুদানপ্রাপ্ত লাইব্রেরীগুলি এর আওতায় আসবে না। তাঁর দাবি, গতবছর এই খাতে ৩ কোটি ৫৫ লক্ষ টাকা খরচ করা হয়েছিল। ১৪৫৫টি গ্রামীণ লাইব্রেরীকে যথাক্রমে ২০ এবং ৩০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়া হয়েছিল। গ্রন্থাগারের প্রতি মানুষের আকর্ষণ বাড়াতে অনুদান প্রদানের পরিমাণ বাড়ানো হচ্ছে।

গ্রন্থাগার মন্ত্রীর দাবি, বিগত আমলে এই ক্ষেত্রটি উপেক্ষিত ছিল। পরিসংখ্যান দিয়ে এদিন বিধানসভায় মন্ত্রী বলেন, ২০১০-১১ অর্থবর্ষে গ্রন্থাগার দপ্তরের বাজেট ছিল ১৪ কোটি টাকা। চলতি আর্থিক বছরে তা বেড়ে হয়েছে ৫০ কোটি। সেই লক্ষ্যে বই সংরক্ষণে অত্যাধুনিক কারিগরি ব্যবস্থা আমদানি করা হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই সরকারি লাইব্রেরীর প্রায় ৩৪ হাজার বই ডিজিটাইজড করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, ২৪৮০টি সরকারি এবং সরকার অনুদানপ্রাপ্ত লাইব্রেরীর অবস্থান এবং যাবতীয় বিবরণ সম্বলিত স্মরণিকা তৈরী করা হয়েছে। যার মাধ্যমে রাজ্যের সমস্ত গ্রন্থাগারের হদিশ সহজেই পাওয়া যাবে।

সৌজন্যেঃ বর্তমান