Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


December 19, 2018

Real-time monitoring for Gangasagar Mela crowd control

Real-time monitoring for Gangasagar Mela crowd control

The district administration of South 24 Parganas is setting up a real-time monitoring system for controlling crowds at the Gangasagar Mela. The annual fair is next scheduled to be held on January 10 and 11.

The system will consist of a network of strategically-placed security cameras. The feeds from these cameras will be available in the 24-hour central control room set up for the fair.

The feed will also be available on the mobile phones of select police personnel in charge of security at the fair, to enable which Wi-Fi machines will be set up at every transit point.

Over the last few years, the Trinamool Congress has tightened the security at the annual pilgrimage, and the real-time monitoring system is a crucial aspect of that.


ডিসেম্বর ১৯, ২০১৮

গঙ্গাসাগর মেলায় ভিড় সামলাতে রিয়েল টাইম মনিটারিং পদ্ধতি

 গঙ্গাসাগর মেলায় ভিড় সামলাতে রিয়েল টাইম মনিটারিং পদ্ধতি

দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগর দ্বীপে প্রতি বছর মকড় সংক্রান্তিতে আসেন লক্ষ লক্ষ পুন্যার্থি। সেই সকল পুন্যার্থিদের সুরক্ষার্থে ২০১৯ সালে আয়োজিত হতে চলা গঙ্গাসাগর মেলায় জেলা প্রশাসন ব্যবহার করবে রিয়েল টাইম মনিটারিং পদ্ধতি। এই পদ্ধতি ব্যবহার করবে সার্ভেলিয়েন্স ক্যামেরার মাধ্যমে।

এই পদ্ধতি ব্যবহার করে সকল প্রশাসনিক ও পুলিশ আধিকারিকরা গঙ্গাসাগর মেলার প্রতি জায়গার অবস্থা প্রত্যক্ষ করতে পারবেন নিজেদের মোবাইলে। এর মাধ্যমে সুষ্ঠুভাবে মেলা পরিচালনা ও ভিড় সামলানোতে আরও সুবিধা হবে।

সার্ভেলিয়েন্স ক্যামেরা প্রতি বছর ব্যবহৃত হয়। এবছর তাঁর সঙ্গে যুক্ত হবে রিয়েল টাইম মনিটারিং পদ্ধতি। রিয়েল টাইম মনিটারিং পদ্ধতি আরও ভালো করতে এবার সার্ভেলিয়েন্স ক্যামেরার সংখ্যা আগের থেকে বাড়ানো হচ্ছে।

প্রতিটি ট্রান্সিট পয়েন্টে থাকছে ওয়াই-ফাই পরিষেবা, যাতে আধিকারিকদের সার্ভেলিয়েন্স ক্যামেরার মাধ্যমে প্রাপ্ত ফুটেজ সবসময় পেতে কোনও অসুবিধা না হয়। ট্রান্সিট পয়েন্ট পৌঁছে পুন্যার্থিরা ভেসেলে করে মুড়িগঙ্গা নদী পেরিয়ে সাগরদ্বীপ যায়। এই নদী পাড় হয়ে দর্শনার্থীদের বাস বা গাড়ি নিতে হয় গঙ্গার মোহনা যেতে।

যেহেতু সাগরদ্বীপে পৌঁছতে এতগুলো যানবাহন বদলাতে হয়, প্রশাসনের একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব ভিড়ের ব্যবস্থার। ভাঁটার জন্য মাঝে বহু সময় ভেসেল পরিষেবা ব্যহত থাকে, সেই সময় নদীর দু’পাড়ে জমা হয় প্রচুর মানুষ।

আরেকটি সুরক্ষা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে, সেটি হল বিশ্রামের জায়গা বাড়ানো হয়েছে। মোট ন’টি বিশ্রামের জায়গা করা হয়েছে। তিনটি করা হয়েছে মূল জায়গায় ও বাকি ৬টি সাগর দ্বীপে।

জেটিতে হুড়োহুড়ি করে দুর্ঘটনার সুযোগ না বাড়িয়ে পুন্যার্থিরা বিশ্রামের জায়গায় অপেক্ষা করে পরের ভেসেলের জন্য অপেক্ষা করতে পারেন।