Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


December 2, 2018

Bangla Govt gives tax relief to small businesses

Bangla Govt gives tax relief to small businesses

To provide relief to tax-payers through settlement of disputes, the West Bengal Taxation Laws (Amendment) Bill, 2018 was in the Assembly on Wednesday, November 28.

Around 20,000 to 25,000 businessmen will be benefitted, as the pending tax related disputes will get settled and at the same time, revenue will be generated for the State Government.

Under the new Act, all tax-related disputes pending before any authority till October 31, with respect to any period ending on or before June 30, 2017, will be taken up. The Act will also provide relief to tax-payers through settlement of disputes, if an application is made on or before January 31, 2019, on payment of 100 per cent admitted tax.

Settlement of tax issues would also be possible on payment of 35 per cent of the arrear tax in dispute, or 40 percent of the arrear tax in dispute, if paid in instalments, or by paying 50 per cent of the amount of penalty payable, in case of penalty for evasion of tax.

Source: Millennium Post


ডিসেম্বর ২, ২০১৮

ছোট-মাঝারি ব্যবসায়ীদের বকেয়া করে ছাড় দিচ্ছে রাজ্য সরকার

ছোট-মাঝারি ব্যবসায়ীদের বকেয়া করে ছাড় দিচ্ছে রাজ্য সরকার

ছোট-মাঝারি ব্যবসায়ীদের সুবিধার জন্য বকেয়া করে বড় ছাড়ের কথা ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। বুধবার বিধানসভায় একথা জানান অর্থমন্ত্রী।

দি ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যাক্সেশন ল’স-এর সংশোধনী এনে অর্থমন্ত্রী বলেন, ২০১৭ সালের ৩০ জুন, অর্থাৎ জিএসটি চালুর আগে যেসব ব্যবসায়ীর ভ্যাট, সেন্ট্রাল সেলস ট্যাক্স, এন্ট্রি ট্যাক্স সহ অন্যান্য কর বকেয়া রয়েছে, তাঁদের ছাড় দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী ৩১ মার্চের মধ্যে তা দিয়ে দেওয়া হলে ব্যবসায়ীরা বিরাট ছাড় পাবেন। তাঁদের দিতে হবে মোট বকেয়া করের মাত্র ৩৫ শতাংশ। যদি কেউ কিস্তিতে দিতে চান, তাহলে তিনি তিনটি কিস্তিতে দেওয়ার সুযোগ পাবেন। সেক্ষেত্রে তাঁকে দিতে হবে মোট বকেয়া করের ৪০ শতাংশ। আর যাঁদের বিরুদ্ধে পেনাল্টি বা জরিমানা করা হয়েছে, তাঁদের দিতে হবে জরিমানার পরিমাণের ৫০ শতাংশ। যাঁদের আদালতে মামলা রয়েছে, তাঁরাও আইনি জটিলতা কাটাতে এই কম্পোজিশন স্কিমের সুযোগ নিতে পারেন। এই নিয়মের ফলে প্রায় ২৫ হাজার ব্যবসায়ী সুবিধা পাবেন বলে মনে করছেন মন্ত্রী।

অর্থমন্ত্রী তাঁর জবাবি ভাষণে বলেন, আমরা আগেও এন্ট্রি ট্যাক্সের ক্ষেত্রে ছাড় দিয়েছিলাম। অনেকেই সেই সুযোগ গ্রহণ করেছিলেন। যাঁরা করেননি এবং যাঁদের কর দেওয়া নিয়ে বিবাদ আছে, তাঁদের জন্য এই ছাড়ের ব্যবস্থা করা হল। গত বছর ১ জুলাই জিএসটি চালু করা হয়েছে। তার আগের করের কাঠামো অনুসারে যে বকেয়া রয়েছে, তার জন্য এই নিয়ম চালু করা হল।

তিনি বলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তড়িঘড়ি জিএসটি না করতে বলেছিলেন। তবু কেন্দ্র চটজলদি করে ফেলায় সমস্যা তৈরি হয়েছে। এখনও জিএসটি রিটার্নের ক্ষেত্রে সমস্যা রয়ে গিয়েছে। প্রথমে ঠিক করা হল, যাঁদের টার্নওভার পাঁচ লক্ষ টাকা, তাঁদের জিএসটির আওতায় নিয়ে আসা হবে। আমরা দাবি করে তা বাড়িয়ে ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত করেছি। ফলে ২০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত যাঁদের টার্নওভার, তাঁদের জিএসটি দিতে হবে না। আমরা ১৯৪টি পণ্যে করের পরিমাণ ১৮ শতাংশে নামিয়ে আনতে পেরেছি।

সৌজন্যেঃ বর্তমান