Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


July 29, 2018

Adivasi lands will never be seized: Mamata Banerjee in Assembly

Adivasi lands will never be seized: Mamata Banerjee in Assembly

On Thursday, July 26, Chief Minister Mamata Banerjee announced a momentous decision: Adivasi lands will never be seized by the State Government. This has the potential to become a path-breaking decision with respect to the respect to the rest of the country, wherever Adivasi issues crop up.

There would no acquisition of land belonging to the Adivasi population of the State, be it for whatever reason. Development and industrialisation will never be at the cost of the rights of the indigenous peoples of the State to their ancestral lands.

In this connection, it needs to be mentioned that as Chief Minister, Mamata Banerjee has done for the Adivasis of Bengal what no predecessor of her has done. From improving access of tribal children to education to introducing the Ol Chiki script for writing Santhali to getting various developmental projects of the Government to reach them, the tribal population of the State, be it in the Jangalmahal region (where they live primarily) or in the other pockets, has benefitted comprehensively and has thus been able to partake of the fruits of progress that Bengal under Mamata Banerjee has experienced.

Source: Pratidin, Aajkaal


জুলাই ২৯, ২০১৮

আদিবাসীদের জমি হস্তান্তর হবে না, বিধানসভায় ঐতিহাসিক ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

আদিবাসীদের জমি হস্তান্তর হবে না, বিধানসভায় ঐতিহাসিক ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

আদিবাসীদের সম্মান জানিয়ে বিধানসভায় যুগান্তকারী পদক্ষেপের কথা ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, আদিবাসীদের জমি হস্তান্তর হবে না। বস্তুত, বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণা গোটা দেশকে পথ দেখাবে।

শিল্পায়নের নামে বিভিন্ন রাজ্যে আদিবাসী ভূমিপুত্রদের উৎখাত করার অভিযোগ ওঠে। বিভিন্ন অজুহাতে সামান্য অর্থের বিনিময়ে ভিটেমাটি ছাড়া হন আদিবাসীরা। এই ঘোষণায় সেই ভয়াবহ ভবিতব্য থেকে মুক্তি পেলেন আদিবাসীরা।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার পর আদিবাসীদের আর্থ-সামাজিক ও সাংস্কৃতিক উন্নয়নে নজর দেন। আদিবাসী উন্নয়নে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর আমলেই মাথা উঁচু করে এগিয়ে চলার পথে আদিবাসীরা শামিল হয়েছেন। পশ্চিমবঙ্গে আদিবাসী শিক্ষার হার ঊর্ধ্বমুখী হচ্ছে। মাধ্যমিক এবং উচ্চমাধ্যমিকে সাঁওতালি ভাষায় প্রশ্নপত্র হচ্ছে। রাজ্য সরকারের নিজস্ব মুখপত্র ‘পশ্চিমবঙ্গ’ ছাপা হচ্ছে অলচিকি ভাষাতেও।

আদিবাসীদের জমি হস্তান্তর হবে না ঘোষণার পর ভারতে খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষের কাছে প্রেরণার উৎস হয়ে উঠবে পশ্চিমবঙ্গ। বাংলা ছাড়া কোনও রাজ্য এখনও আদিবাসীদের জন্য এমন সুচিন্তিত পরিকল্পনা নেয়নি।

সৌজন্যে: প্রতিদিন, আজকাল