Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


December 8, 2018

Homestays to come up in the lap of nature in Jhargram

Homestays to come up in the lap of nature in Jhargram

After Purulia and Alipurduar, homestays will be given a push in Jhargram district. The forest-dominated district has a lot of potential in tourism and homestays are a major enabler towards fulfilling that potential.

Chief Minister Mamata Banerjee, during the administrative review meeting in Jhargram on November 26, instructed the district magistrate to set up at least 100 homestays.

Proposals will be taken up with house-owners with spare rooms and other amenities for setting up homestays, by the district administration in Belpahari, Kankrajhore, Gopiballavpur and other places.

Building hotels and resorts requires a lot of capital expenditure; homestays, on the other hand, need minimal additions in terms of infrastructure. Homestays will bring in many more tourists and that will help the local economy too. For example, local handicrafts and food products will find many more buyers.

The district administration is now going full steam ahead with setting up as many homestays as possible.

Source: Ei Samay


ডিসেম্বর ৮, ২০১৮

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে আরণ্যক পরিবেশে হোম স্টে

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে আরণ্যক পরিবেশে হোম স্টে

আলিপুরদুয়ার, পুরুলিয়ার পর অরণ্যসুন্দরী ঝাড়গ্রামেও সরকারি উদ্যোগে তৈরী হবে হোম-স্টে। শাল-মহুয়া, টিলা-ডুংরি ঘেরা ঝাড়গ্রামকে পর্যটকদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করে তুলতে অন্তত ১০০টি হোম-স্টে তৈরী করতে জেলাশাসককে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ঝাড়গ্রামে প্রশাসনিক বৈঠকে জেলাশাসককে ‘উপযুক্ত পদক্ষেপ’ নিতে বলেন তিনি৷ সেই লক্ষ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছে প্রশাসন।

জেলাশাসক বলেন, ‘বেলপাহাড়ি, কাঁকড়াঝোড়-সহ বিভিন্ন এলাকায় হোম-স্টে তৈরী করতে আগ্রহীদের সঙ্গে কথা বলা হবে। ট্যুরিজম দপ্তর এবং এই জেলায় যারা পর্যটন নিয়ে কাজ করছেন, তাঁদের সঙ্গেও কথা বলা হবে।’

মুখ্যমন্ত্রী জেলাশাসককে বলেছিলেন, ঝাড়গ্রাম, কাঁকড়াঝোড় ও চিলকিগড় এলাকায় ১০০টি হোম-স্টে তৈরী করুন৷ তাহলে অনেক পর্যটক সেখানে থাকতে পারবেন৷ হোম-স্টে গুলির পাশে গ্রামীণ হাট তৈরি করতেও ঝাড়গ্রাম জেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷ এর ফলে এলাকার মানুষ যে সমস্ত হস্তশিল্প তৈরী করেন, সেগুলি ওই হাটে বিক্রীর ব্যবস্থা হবে।

সৌজন্যেঃ এই সময়