Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


December 12, 2018

Bangla Govt to ramp up production of Tulaipanji

Bangla Govt to ramp up production of Tulaipanji

From next year, the State Agriculture Department has decided to use paddy transplanter machines for large-scale cultivation of the indigenous tulaipanji rice, in Chopra and Itahar blocks of Uttar Dinajpur district, said a senior official of the State Agriculture Department.

The pilot project on a 3-acre land at Kalua in Hemtabad block in the same district, from August to November, has resulted in 20 per cent more production of the variety.

The process of identifying the areas for cultivation is on, said the official. The variety is suited to grow in places adjacent to rivers, as that is congenial for giving the particular aroma to the rice.

Tulaipanji is cultivated in the Raiganj, Kaliaganj, Hemtabad and Karandighi blocks of Uttar Dinajpur and Kushmandi block of Dakshin Dinajpur. However, the production is lesser than the demand, as a result of which the price is beyond what common people can afford. The new cultivations in Chopra and Itahar blocks would help in easing the situation.

Efforts led by Chief Minister Mamata Banerjee have resulted in increased awareness of, and hence high demand for, several indigenous varieties, tulaipanji and gobindobhog among them, across the country and in foreign markets too.

Tulaipanji is only grown in a few areas in north Bengal. As per figures available with the district administration of Uttar Dinajpur, tulaipanji was cultivated on 6,700 hectares in financial year 2017-18, compared to 5,400 hectares in 2016-17 and 4,600 hectares in 2015-16, and thus, registering a growth of 45 per cent in three years.

The production has also gradually gone up, from 10,120 million tonnes in 2015-16 to 14,740 million tonnes in 2017-18.


ডিসেম্বর ১২, ২০১৮

তুলাইপাঞ্জি চালের উৎপাদন বাড়াতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার

তুলাইপাঞ্জি চালের উৎপাদন বাড়াতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার

রায়গঞ্জের তুলাইপাঞ্জি চালের বিশ্বজোড়া খ্যাতি। তাই তুলাইপাঞ্জি চাষে পরীক্ষামূলকভাবে প্যাডি ট্রান্সপ্লান্টার মেশিনের ব্যবহার করেছে কৃষি দপ্তর। প্রথম দফায় হেমতাবাদে সুগন্ধি চালের ফলনও বেড়েছে প্রায় কুড়ি শতাংশ। আগামী বছর উত্তর দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন অংশে তুলাইপাঞ্জি চাষের লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে কৃষি দফতর। নরম, ধবধবে সাদা। চটপট রান্না। অসম্ভব সুন্দর গন্ধ। রায়গঞ্জের তুলাইপাঞ্জি চালের চাহিদা দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে পৌঁছেছে বিদেশের বাজারে।

উত্তর দিনাজপুর জেলার আদি ধানগুলোর মধ্যে অন্যতম তুলাইপাঞ্জি। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ব্র্যান্ডিং শুরু করার পর তুলাইপাঞ্জির উৎপাদন কয়েক গুণ বেড়েছে। জেলা কৃষি দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৫-১৬ মরশুমে উত্তর দিনাজপুরে ৪ হাজার ৬০০ হেক্টর জমিতে তুলাইপাঞ্জি জাতের উৎপাদন হয়েছিল। পরের মরশুমে এর পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ৫ হাজার ৪০০ হেক্টরে। সর্বশেষ ২০১৭-১৮ মরশুমে উত্তর দিনাজপুরে ৬ হাজার ৭০০ হেক্টর জমিতে তুলাইপাঞ্জি জাতের ধান উৎপাদন হয়েছে। সে হিসাবে তিন বছরে এ জেলায় নতুন করে ২ হাজার ১০০ হেক্টর জমিতে তুলাইপাঞ্জি উৎপাদন হয়েছে।

তুলাইপাঞ্জি চালের উৎপাদনও বাড়ছে। ২০১৫-১৬ মরশুমে এ জাতের চাল উৎপাদন হয়েছিল ১০ হাজার ১২০ টন। পরের মরশুমে এর পরিমাণ বেড়ে দাঁড়ায় ১১ হাজার ৮৮০ টনে। ২০১৭-১৮ মরশুমে উত্তর দিনাজপুরে ১৪ হাজার ৭৪০ টন তুলাইপাঞ্জি চাল উৎপাদন হয়। জেলার রানীগঞ্জ, কালিয়াগঞ্জ, হেমতাবাদ ও করনদীঘিতে সবচেয়ে বেশি তুলাইপাঞ্জি চাল উৎপাদন হয়।

বর্তমানে পাশের জেলা দক্ষিণ দিনাজপুরের চাষীরাও এ চাল উৎপাদন শুরু করেছেন। তুলাইপাঞ্জি উত্তর দিনাজপুরের চাষীদের নিজস্ব সুঘ্রাণযুক্ত চালের জাত। ঘ্রাণ বাসমতির মতো হলেও আকারে তুলনামূলক ছোট। এ চালের ২৮ দশমিক ৩ শতাংশ শ্বেতসার। প্রোটিন রয়েছে ৭ দশমিক ৩ শতাংশ।