Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


December 21, 2018

New tourism facilities in Frazerganj, Henry’s Island

New tourism facilities in Frazerganj, Henry’s Island

Several new facilities for tourists are coming up at 10 Mile in Frazerganj and in Henry’s Island, including resorts, watchtowers and cafeterias.

The Fisheries Department’s State Fisheries Development Corporation (SFDC), which is developing the facilities, has divided the tourism facilities in Henry’s Island into two areas – Sundari and Mangrove.

Form Sundari, the beach is five-minute walking distance, and it is about 1 km from the Mangrove tourist centre. The 1 km route is a scenic, including being lined with fish cultivation ponds (bheris) and is a major attraction, according to departmental official.

At Mangrove, to the nine cottages, three more have been added, as well as a four-person dormitory.

At the Sundari centre, there were three cottages named Sundari, Hetal and Garan. Four more have been built for the winter tourist season onwards, named Sundari (New), Mudhouse, Mrignayana and Lake View. A total of 11 cottages are being built.

At 10 Mile in Frazerganj, a cafeteria has been built and a watchtower for watching the lakhs of little red crabs that crowd the beach without being a hindrance to them, which would be the case if too many people walked on the beach all the time.

Source: Bartaman


ডিসেম্বর ২১, ২০১৮

পর্যটক টানতে নতুন করে সেজে উঠেছে হেনরিজ আইল্যান্ড, ফ্রেজারগঞ্জ

পর্যটক টানতে নতুন করে সেজে উঠেছে হেনরিজ আইল্যান্ড, ফ্রেজারগঞ্জ

পর্যটক টানতে নতুন করে সেজে উঠছে সুন্দরবনের হেনরিজ আইল্যান্ড, ফ্রেজারগঞ্জ। দর্শকদের আকর্ষণ বাড়াতে তৈরী করা হচ্ছে ওয়াচ টাওয়ার, ক্যাফেটেরিয়া। সব মিলিয়ে পর্যটক টানতে একেবারে নতুন রূপে সেজে উঠছে হেনরিজ আইল্যান্ড। সঙ্গে ফ্রেজারগঞ্জের দশ মাইলও।

রাজ্য মৎস্য উন্নয়ন নিগমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, হেনরিজ আইল্যান্ড পর্যটন কেন্দ্রকে মূলত দু’টি ভাগে তারা তৈরী করেছে। একটি সুন্দরী এবং অন্যটি ম্যানগ্রোভ। এর মধ্যে সুন্দরী পর্যটন কেন্দ্র থেকে হেনরিজ আইল্যান্ডের সমুদ্রতট হেঁটে পাঁচ-সাত মিনিট। আর ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্র থেকে সমুদ্রতটের দূরত্ব এক কিমির মধ্যে। গোটা রাস্তাতেই একের পর এক ভেড়ি, সঙ্গে অপরূপ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য পর্যটকদের আকৃষ্ট করবে বলেই নিগমের আধিকারিকদের বিশ্বাস। ম্যানগ্রোভে এতদিন ন’টি ঘরে পর্যটকদের থাকার ব্যবস্থা ছিল। সেখানে আরও তিনটি ঘর এবং একটি চারজনের থাকার ডরমেটরি এই মরশুমেই খুলে যাচ্ছে। এছাড়াও পর্যটকদের চাহিদার কথা মাথায় রেখে রেস্তোরাঁকে ইতিমধ্যে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত তৈরী করা হয়েছে। বানানো হয়েছে একটি মন্দিরও।

ম্যানগ্রোভের মতোই সেজে উঠছে সুন্দরী বিভাগও। সেখানকার সুন্দরী, হেতাল এবং গরান নামের বাড়িতে এতদিন পর্যটকদের জন্য আটটি ঘর ছিল। নিগমের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, চলতি শীতে সুন্দরী (নিউ), মাড হাউস, মৃগনয়না এবং লেক ভিউ নামে আরও কয়েকটি নতুন থাকার জায়গা বানানো হয়েছে। এখানে মোট নতুন ১১টি ঘর তৈরীকরা হচ্ছে পর্যটকদের জন্য। এগুলোও এই শীতে পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে। সুন্দরী বিভাগকে পর্যটকদের কাছে আরও আকর্ষণীয় করতে ভেড়ি পেরিয়ে সমুদ্রতট পর্যন্ত যাওয়ার জন্য একটি কাঠের সেতুও বানানো হয়েছে নিগমের পক্ষ থেকে। নিগমের এক আধিকারিক জানান, কিছুটা নিরিবিলিতে সমুদ্রতটে ঘুরে বেড়ানো থেকে শুরু করে পরিযায়ী পাখিদের কলতান শুনতে হলে হেনরিজ আইল্যান্ড অন্যতম আদর্শ জায়গা।

সমুদ্রতটের আকর্ষণ বাড়াতে আবার নিগমের পক্ষ থেকে একটি ওয়াচ টাওয়ারও তৈরী করা হয়েছে। সেখান থেকে তটের দু’ধারে থাকা লক্ষ লক্ষ লাল কাঁকড়া দেখার আকর্ষণ পর্যটকদের এখানে টেনে আনবে বলেই আশাবাদী নিগম। হেনরিজ আইল্যান্ড মূলত মৎস্য নিগমের অধীনস্থ এলাকা। তবে বকখালি বা অন্যত্র আসা পর্যটকরা যাতে হেনরিজ সমুদ্রতট দেখা থেকে বঞ্চিত না হন, তাই টিকিট কেটে সেখান পর্যন্ত পর্যটকদের যাওয়ার ব্যবস্থা গত শীত থেকেই চালু করা হয়। সবমিলিয়ে এবছর শীতে হেনরিজ আইল্যান্ড পর্যটকদের কাছে সুন্দরবনের অন্যতম আকর্ষণীয় কেন্দ্র হবে বলেই নিগমের কর্তারা আশাবাদী।

শুধু হেনরিজ নয়, ফ্রেজারগঞ্জের ১০ মাইলও এবার পর্যটকদের আকৃষ্ট করবে। এখানেও থাকার জন্য চারটি ঘরের ব্যবস্থা করা হয়েছে। সেই সঙ্গে বানানো হচ্ছে অত্যাধুনিক একটি ক্যাফেটেরিয়া। চলতি মাসেই এটি চালু হয়ে যাবে। সন্ধ্যায় পর্যটকদের সময় কাটানোর জন্য এটি এক নয়া ঠিকানা হয়ে উঠবে বলেই নিগম আশা প্রকাশ করছে।

নিগমের এক কর্তা আরও জানান, জলাশয়ের উপর ঝুলন্ত বারান্দাযুক্ত আরও কয়েকটি আকর্ষণীয় থাকার জায়গা তৈরীর পরিকল্পনা রয়েছে। তবে এই শীতে সেগুলি চালু হবে না। এছাড়া পর্যটন নিগমের পক্ষ থেকে এখানে থাকার কয়েকটি অত্যাধুনিক ঘর তৈরী করা হচ্ছে। সেগুলিও আগামী বছর শীতে চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে।

সৌজন্যেঃ বর্তমান