Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


October 26, 2018

Bangla CM inaugurates Soujanya – a guesthouse of international standards

Bangla CM inaugurates Soujanya – a guesthouse of international standards

Chief Minister Mamata Banerjee today inaugurated Soujanya, a guest house of international standards. It is located on the grounds of Hastings House in New Alipore, Kolkata.

The foundation stone was laid by the Chief Minister in June, 2015. The guest house has been constructed by the State Public Works Department.

High-profile guests like the President and the Prime Minister and important international guests will be housed at Soujanya.

The domed palatial architecture on Judges Court Road has been built over an area of 1 lakh square feet. It has a G+2 structure. In the ground floor, there is a banquet hall along with a media centre for press conferences. A beautiful lawn surrounds it. There is an underground parking lot as well with space for 40 cars.

Highlights of the Chief Minister’s speech:

We are constructing an annex building besides Nabanna. We have named it Upanna. We have also set up ‘Shubhanna’ in Bidhannagar. Dhana-Dhanya auditorium is also coming up.

We are renovating Milan Mela grounds. It will be of international standards. We have set up Biswa Bangla Convention Centre, Mother’s Wax Museum and Eco Park also.

We will construct some more flyovers in Kolkata. Budge Budge-Maheshtala Flyover will be inaugurated soon.

The skywalk at Dakshineshwar will be inaugurated on November 5. We are thinking of constructing a skywalk at Kalighat also.

We have allocated Rs 18,000 crore for creation of physical infrastructure. We have set aside Rs 25,000 crore in the budge for this purpose. People will benefit because of this.

Even Hyderabad House in Delhi does not have the facilities we are offering at Soujanyo. There are nine suites here where heads of state can stay. We have also set up a media room for journalists.

Large conventions can be held at Biswa Bangla Convention Centre. At Soujanyo, medium-sized meets can be held.

My best wishes to all the PWD workers. I had identified the land for Soujanyo, Gajaldoba and Eco Park.

We have also set up Sister Nivedita College for girls. We are creating infrastructure for people.

Tourism and business will come together with the setting up of an international convention centre at Digha.

Bijoya greetings to all. We have organised a Bijoya meet at Eco Park; media, industrialists and diplomats have been invited.

Advance greetings on the occasion of Kali Puja, Deepavali and Chhat Puja.


অক্টোবর ২৬, ২০১৮

আলিপুরে আন্তর্জাতিক অতিথি নিবাস “সৌজন্য” উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

আলিপুরে আন্তর্জাতিক অতিথি নিবাস “সৌজন্য” উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী

আলিপুরে তৈরী হওয়া অত্যাধুনিক আন্তর্জাতিক মানের অতিথিশালার উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ রাজ্যের এই প্রকার অতিথিশালা এই প্রথম। ২০১৫ সালে মুখ্যমন্ত্রী এই বিষয়ে ভাবনা চিন্তা শুরু করেন। তিনি সিদ্ধান্ত নেন দিল্লীর হায়াদ্রাবাদ হাউসের আদলে এ রাজ্যেও একটি আধুনিক অতিথি নিবাস তৈরী করার।

আলিপুরে পূর্ত দপ্তরের জমিতে ২০১৫ সালের জুন মাসে ‘সৌজন্য’ শিলান্যাস ও নামকরণ করেন মুখ্যমন্ত্রী। রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রীর মত হাইপ্রোফাইল অতিথিদের এবার থেকে এখানেই রাখা হবে। বিদেশের হাইপ্রোফাইল অতিথিদেরও এখানেই রাখা হবে।

এই অতিথিশালায় আছে কমিউনিটি হল, কনফারেন্স রুম, স্পেশ্যাল কোর্ট ইয়ার্ড। এই অতিথিশালা ঘিরে থাকছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আন্তর্জাতিক মানের বৈঠক করার সব সুবিধাই থাকছে এই অতিথিশালায়।

মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের কিছু অংশঃ

নবান্নের পাশে আরেকটি অ্যানেক্স বিল্ডিং তৈরী হচ্ছে, নাম রাখা হয়েছে উপান্ন। বিধাননগরে শুভান্ন তৈরী করা হয়েছে। ধন-ধান্য নামে একটা অডিটোরিয়াম তৈরী করা হচ্ছে।

মিলন মেলা প্রাঙ্গনকে নতুন করে আন্তর্জাতিক মানের তৈরী করা হচ্ছে। বিশ্ব বাংলা কনভেনশন সেন্টার, মাদার্স ওয়াক্স মিউজিয়াম, ইকো ট্যুরিজম পার্ক তৈরী করা হয়েছে।

কলকাতায় আরও কিছু নতুন উড়ালপুল তৈরী করা হবে। বজবজ-মহেশতোলা উড়ালপুল আর কিছুদিনের মধ্যেই উদ্বোধন করা হবে।

দক্ষিনেশ্বরের স্কাইওয়াক ৫ই নভেম্বর উদ্বোধন করা হবে। কালীঘাট মন্দিরের সামনেও স্কাইওয়াকের কথা ভাবা হচ্ছে।

সেতু, রাস্তা ও অন্যান্য পরিকাঠামো বিষয়ক উন্নয়নের জন্য ১৮,০০০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এবারের বাজেটে আরও ২৫,০০০ কোটি টাকা রাখা আছে। এতে মানুষের উপকার হবে।

দিল্লীর হায়াদ্রাবাদ হাউসে এত সুবিধা নেই যা সৌজন্যতে আমরা করেছি। সৌজন্যতে নটি স্যুট আছে যেখানে রাষ্ট্রপ্রধানরা থাকতে পারবেন। এখানে মিডিয়া রূমও করা হয়েছে সাংবাদিকদের জন্য।

বিশ্ব বাংলা কনভেনশন সেন্টারে বড় মীটিং করা যায়; এই সৌজন্যতে মাঝারি আকারের মীটিং করা যাবে।

পূর্ত দপ্তরের সকল কর্মীদের আমি অভিবাদন জানাই। গাজোলডোবা, ইকো ট্যুরিজম পার্কের জমির মত এই সৌজন্যর জায়গাটিও আমিই খুঁজে বার করেছিলাম।

মেয়েদের জন্য আমরা সিস্টার নিবেদিতা কলেজ তৈরী করেছি। মানুষের জন্য সমস্ত পরিকাঠামো তৈরী করা হচ্ছে।

পর্যটন ও বাণিজ্যিক মিটিং যাতে একসঙ্গে হয়, সেজন্য দীঘাতেও মাঝারি আকারের আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার তৈরী করছি।

গত সাত বছরে অনেক পরিকাঠামো তৈরী করা হয়েছে।

সকলকে শুভ বিজয়ার শুভেচ্ছা জানাই। আগামী ১৪ তারিখে ইকো ট্যুরিজম পার্কে মিডিয়া, শিল্পপতি ও কূটনীতিবিদদের আমরা আমন্ত্রণ জানিয়েছি।

আসন্ন কালীপুজো, দীপাবলি ও ছট পুজোর অগ্রীম শুভেচ্ছা জানাই সকলকে।