Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


October 13, 2018

‘Hop hop service’ for Durga Puja pandal hopping begins today

‘Hop hop service’ for Durga Puja pandal hopping begins today

The State Transport Department has created a one-ticket plan for Durga Puja revellers in Kolkata. It is called Hop Hop Service.

The tickets would be available at government bus and tram depots. The service would start from today of Chaturthi and continue till Nabami.

According to the plan, a single ticket of Rs 100 will enable a person to board buses, trams and vessels for the whole day. The service can be availed from 12 PM till midnight.

For this special single-ticket service, Kolkata has been divided into several routes. There would be at least 10 buses on each route, both AC and non-AC, every 10 minutes. One would be able to just hop on and off any place one likes to.

Vessels would be part of the service too. The ferry service will be available from Baghbazar and other jetties to Belur Math.

This year, the Metro Railway too has decided to run special trains services from Chaturthi instead of Saptami, given the rush for pandal hopping.

 


অক্টোবর ১৩, ২০১৮

এক টিকিটে ঠাকুর দেখা আজ থেকে

এক টিকিটে ঠাকুর দেখা আজ থেকে

আজ থেকেই জনগণের ঠাকুর দেখার সুবিধার্থে পরিবহণ দপ্তর চালু করল হপহপ সার্ভিস। চলবে নবমী পর্যন্ত। একটি টিকিটেই গোটা দিনের ভ্রমণ এসি, নন-এসি বাসে, ট্রামে ও লঞ্চে। স্পেশ্যাল এই টিকিট পাওয়া যাচ্ছে সরকারি বিভিন্ন ডিপোয়। এই ‘অল ডে টিকিট’-এর দাম করা হচ্ছে ১০০ টাকা। রাত ১২টা থেকে পরদিন রাত ১২টা পর্যন্ত ওই টিকিট ব্যবহার করা যাবে।

পুজোয় এখন চতুর্থী থেকেই সাধারণ মানুষ ঠাকুর দেখতে রাস্তায় বেরিয়ে পড়েন। শনি ও রবিবার ভিড় আরও বাড়বে। তাঁদের কথা ভেবেই এই বিশেষ পরিষেবা। যে বাসগুলো ঘুরে বেড়াবে বড় পুজোকে কেন্দ্র করে তৈরী হওয়া নয়া রুটে। প্রাথমিকভাবে ঠিক হয়েছে দুপুর ১২টা থেকে প্রায় মধ্যরাত পর্যন্ত চলবে এই পরিষেবা।

দপ্তরের এক আধিকারিক জানাচ্ছেন, একটি বাস গোটা কলকাতা ঘুরবে না। কলকাতাকে ভাঙা হবে চার-পাঁচটি ভাগে। উত্তর, দক্ষিণ, পূর্ব, পশ্চিম এবং মধ্য কলকাতা। প্রত্যেক দিকের বড় পুজোকে কেন্দ্র করে তৈরী হবে বিভিন্ন রুট। শুধু বাসে নয়, মধ্য কলকাতার পুরনো এবং বনেদি বাড়ির পুজো দেখানো হবে ট্রামেও। ওই একই টিকিটে।

ট্রাফিকের যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তেমনভাবেই রুটগুলো তৈরী হয়েছে। কারণ রাতে ভিড়ের চাপ বাড়বে। সেক্ষেত্রে যে রাস্তা দিয়ে মণ্ডপের কাছে দ্রুত পৌঁছানো যাবে, সেই দিকেই রুট থাকছে বাসের। ওই ১০০ টাকায় ঘুরে আসা যাবে ভেসেলেও। মানে কেউ যদি বেলুড় মঠের পুজো দেখতে চান তবে তিনিও বাগবাজার বা অন্য যে কোনও ঘাট থেকে ভেসেলে চড়ে মঠে গিয়ে ঠাকুর দেখে ফের ভেসেলে ফিরে আসতে পারবেন। পুজোর রুটে প্রতি ১০ মিনিট অন্তর দেওয়া হবে বাস। ন্যূনতম ১০টি করে বাস রাখা হচ্ছে প্রতি রুটে। প্রয়োজনে সেই সংখ্যা আরও বাড়ানো হবে।

পরিবহণ দপ্তরের এক আধিকারিক বলেন, “অল ডে টিকিটে পূর্বে নিউ টাউন থেকে পশ্চিমে হাওড়া, উত্তরে ব্যারাকপুর, বারাসত থেকে দক্ষিণের ঠাকুরপুকুর-বারুইপুর পর্যন্ত যে কোনও পথে যত বার খুশি যাতায়াত করা যাবে।” নদীপথে আড়িয়াদহ এবং দক্ষিণে মিলেনিয়াম পার্ক জেটির মধ্যেও একই টিকিটে লঞ্চে যাতায়াত করা যাবে।