Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


June 4, 2018

Project Swayangsiddha to combat human trafficking, prevent child marriage

Project Swayangsiddha to combat human trafficking, prevent child marriage

West Bengal Police has come up with a project, Swayangsiddha, to combat human trafficking and prevent child marriage.

‘Swayangsiddha’ means ‘self-reliant’. The project envisions empowering young girls, and boys, with knowledge and skills so that they are aware, alert, able to make informed choices and are less vulnerable to violation and abuse of their rights.

Swayangsiddha Groups have been formed in schools and colleges with interested students. These groups were formed with students between the ages of 12 and 21 years. The State Government’s Child Protection Committees are monitoring and guiding these groups.

In all, 3,862 students have come forward to form the Swayangsiddha Groups, of which 69 per cent are girls and the rest 31 per cent are boys. They are sharing information on human trafficking, child rights, ill effects of child marriage and the important helpline numbers with other students and their neighborhoods. Schools have identified 200 teachers as mentors.

Part of the project is strengthening the response mechanism to acts of violation of rights in collaboration with police and child protection committees to build safe communities.

Strengthening access to schemes and entitlements on education, training, livelihood and food security for vulnerable groups is also an important part of Swayangsiddha.

In this respect, it needs to be mentioned that the internationally-hailed scheme, Kanyashree, a brainchild of Chief Minister Mamata Banerjee, does provide help in some of these areas to schoolgirls across the State. Kanyashree Clubs have been opened in various places. Now, with Swayangsiddha, those efforts are being strengthened and a wider range of issues are being addressed.

Source: Project website


জুন ৪, ২০১৮

বাল্য বিবাহ এবং নারী পাচার রুখবে ‘স্বয়ংসিদ্ধা’

বাল্য বিবাহ এবং নারী পাচার রুখবে ‘স্বয়ংসিদ্ধা’

বাল্য বিবাহ এবং নারী পাচার রুখতে কলকাতা পুলিশ নিয়ে এল স্বয়ংসিদ্ধা প্রকল্প।

‘স্বয়ংসিদ্ধা’ শব্দটির আক্ষরিক অর্থ স্বনির্ভর। এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য অল্পবয়সী ছেলেমেয়েদের আইনশৃঙ্খলা সম্বন্ধে সচেতন করা, যাতে তারা তাদের পারিপার্শ্বিক মানুষগুলোকে সচেতন করতে পারে।

ইচ্ছুক পড়ুয়াদের নিয়ে স্কুল-কলেজে স্বয়ংসিদ্ধা বাহিনী গঠন করা হয়েছে। এই বাহিনীতে যারা আছে তাদের বয়স ১২ থেকে ২১ বছরের মধ্যে। রাজ্য সরকারের শিশু সুরক্ষা কমিটি এই বাহিনীর দেখাশোনা করছে এবং সমস্ত নির্দেশ দিচ্ছে।

এখনও পর্যন্ত ৩৮৬২ জন ছেলেমেয়ে ‘স্বয়ংসিদ্ধা’ বাহিনীর সদস্য। তাঁর মধ্যে ৬৯ শতাংশ মেয়ে ও ৩১ শতাংশ ছেলে। তারা তাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বাকি পড়ুয়া, এবং নিজেদের প্রতিবেশী, চেনা-পরিজনদের মধ্যে বাল্য বিবাহের কুপ্রভাব, নারীপাচার সম্বন্ধে তথ্য দিয়ে সচেতনতা ছড়াবে। ২০০ জন শিক্ষককে স্কুলগুলি মেন্টর বা উপদেষ্টা হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

এই প্রকল্পের একদিক যেমন পুলিশ ও শিশু সুরক্ষা কমিটির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে অপরাধমুক্ত সুস্থ সমাজ গড়ে তোলা, তেমনই সমাজের প্রান্তিক মানুষদের কাছে শিক্ষা, প্রশিক্ষণ, জীবিকা ও খাদ্য সুরক্ষার সুবিধা পৌঁছে দেওয়াও এই প্রকল্পের অংশ।

প্রসঙ্গত, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসুত, বিশ্ববন্দিত কন্যাশ্রী প্রকল্প রাজ্যেবাল্যবিবাহ রোধ করা এবং মেয়েদের শিক্ষার প্রসারে অনেকটাই সফল হয়েছে। অনেক জায়গায় কন্যাশ্রী ক্লাব খোলা হয়েছে। এবার স্বয়ংসিদ্ধা প্রকল্পের সাহায্যে ওই প্রচেষ্টাকেই আরও সুদূরপ্রসারী করে তোলা হবে।

স্বয়ংসিদ্ধা ওয়েবসাইট দেখার জন্য ক্লিক করুন এখানে