Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


August 5, 2018

Bangla Govt to develop infrastructure of traditional wooden furniture clusters

Bangla Govt to develop infrastructure of traditional wooden furniture clusters

The State Micro, Small and Medium Enterprises Department has decided to create necessary infrastructure for 30 traditional wooden furniture clusters that have been identified across Bengal.

In many districts, according to an official of the department, traditional wooden furniture-making is a generational business and many people earn a livelihood out of this. The Government wants development and sustenance of the trade that can witness a huge turnover annually. The Government’s initiative will also help in improving the economy of the places where the clusters exist.

The districts where clusters have been identified include Jalpaiguri, Howrah, Alipurduar, Paschim Medinipur, Purulia, Uttar Dinajpur, Birbhum and Bankura.

As part of the State Government’s initiative, skill development programmes would be organised for the carpenters. Hence, they will be able to pick up new techniques and produce furniture as per the demand of the present times. This will help them compete in the national and international market.

In the clusters, Common Facility Centres will be developed. Testing laboratories and units for mechanised processing of tools will be set up too.

Special Purpose Vehicles (SPV) will be working to identify the need of each of the clusters and will also execute the development work subsequently. Members of the SPVs have already started speaking to the people who own units in the clusters, to know their requirements.

 

Source: Millennium Post


অগাস্ট ৫, ২০১৮

সাবেকি কাঠের আসবাব তৈরীর ক্লাস্টারের পরিকাঠামো উন্নয়ন করবে রাজ্য

সাবেকি কাঠের আসবাব তৈরীর ক্লাস্টারের পরিকাঠামো উন্নয়ন করবে রাজ্য

সাবেকি কাঠের আসবাব তৈরীর ক্লাস্টারের পরিকাঠামো উন্নয়ন করবে ক্ষুদ্র, মাঝারি ও কুটির শিল্প দপ্তর। সারা রাজ্যে পরিচিত ৩০টি সাবেকি কাঠের আসবাব তৈরীর ক্লাস্টারের প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো তৈরী করতে উদ্যোগী হয়েছে রাজ্য সরকার।

অনেক জেলায় পারম্পরিক ভাবে সাবেকি আসবাব তৈরী করা হয়; এর মাধ্যমে বেশ কিছু মানুষ জীবিকা নির্বাহ করে। সরকার এবার এই ব্যবসার পরিধি অনেকটা বাড়ানোর জন্যে প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো গড়তে চায়। এর ফলে এই মানুষগুলির আয়বৃদ্ধি হবে। তাছাড়া, যেসব অঞ্চলে ক্লাস্টারের প্রয়োজনীয় পরিকাঠামো তৈরী করা হবে, সেই সব অঞ্চলের আর্থিক উন্নয়নও হবে।

যেসব জেলায় ক্লাস্টারগুলিকে চিহ্নিত করা হয়েছে, সেগুলি হল: জলপাইগুড়ি, হাওড়া, আলিপুরদুয়ার, পশ্চিম মেদিনীপুর, পুরুলিয়া, উত্তর দিনাজপুর, বীরভূম ও বাঁকুড়া।

সরকারি উদ্যোগে এখানকার কাঠের কারিগরদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এর ফলে তারা আসবাব তৈরী করার জন্য নতুন প্রযুক্তি সম্বন্ধে অবগত হতে পারবেন। দেশে ও বিদেশে তাদের তৈরী আসবাব রপ্তানি করার সুযোগও বাড়বে তাদের।

এই ক্লাস্টারে একটি কমন ফেসিলিটি সেন্টার গড়া হবে। গবেষণাগার ও আধুনিক যন্ত্রপাতি তৈরীর কেন্দ্রও গড়া হবে।

প্রতিটি ক্লাস্টারের চাহিদা জানতে ইতিমধ্যেই তৈরী হয়েছে স্পেশ্যাল পারপাস ভেহিক্যাল। ক্লাস্টারগুলির উন্নয়নের ওপরেও নজর রাখবেন তারা। স্পেশ্যাল পারপাস ভেহিকেলের সদস্যেরা ইতিমধ্যেই এই ক্লাস্টারগুলির মালিকদের সঙ্গে কথা বলা শুরু করেছে তাদের চাহিদা জানতে।