Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


August 10, 2018

Bangla Govt announces funding for Light Hub in Chandannagar

Bangla Govt announces funding for Light Hub in Chandannagar

The Bengal Government has announced funding to the tune of Rs 11.5 crore for the proposed Light Hub in Chandannagar in Hooghly district. The hub is a brainchild of Chief Minister Mamata Banerjee, who had announced its creation last year during an administrative review meeting in Tarakeswar.

Chandannagar is famous for its lighting displays. During Jagaddhatri Puja in Chandannagar and during Durga Puja in Kolkata and elsewhere, the expertise of the lighting technicians is on ample display. It has been like this for as long time. A few have spread their wings to Durga Pujas outside Bengal too.

Now the government has decided to give a structured boost to this industry by creating a special zone. The government would have a comprehensive role in the hub. From training lighting technicians and helping them market their products to enable them to bag contracts for different Pujas, everything would be overseen by the government.

This would naturally lead to more and better employment opportunities, including opportunities for the experts to spread their wings to other places in India, especially where Durga Pujas take place, and even abroad.

After Mishti Hub, Muslin Hub and similar clusters comes the Light Hub. These hubs have given a huge boost to traditional small-scale industries. They provide a steady source of income for the families involved and also help in preserving the crafts.

Source: Khabar 365 Din


অগাস্ট ১০, ২০১৮

চন্দননগরের লাইট হাবের জন্য খরচের ঘোষণা করল রাজ্য সরকার

চন্দননগরের লাইট হাবের জন্য খরচের ঘোষণা করল রাজ্য সরকার

হুগলী জেলার চন্দননগরের প্রস্তাবিত লাইট হাব তৈরীর জন্য ১১.৫ কোটি টাকা ঘোষণা করল রাজ্য সরকার। এই হাব মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্কপ্রসূত। তারকেশ্বরে প্রশাসনিক বৈঠকে একথা ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আলোর জন্য বিখ্যাত চন্দননগর। জগধাত্রী পুজোর সময় চন্দননগরের আলোকসজ্জার সারা দেশ বিদেশে সুখ্যাতি রয়েছে। কলকাতার ও অন্যান্য অনেক জায়গার দুর্গা পুজোয় তাদের আলোক সজ্জা সকলের মন কাড়ে। এই প্রথা অনেক দিন ধরে চলছে। এদের মধ্যে কয়েক জন আলোক শিল্পী রাজ্যের বাইরেও সুপরিচিত এই কাজের জন্য।

এবার সরকার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আলোর শিল্পকে অন্য মাত্রায় তুলে ধরতে স্পেশ্যাল জোন তৈরীর। এই হাবে মুখ্য ভূমিকা পালন করবে রাজ্য সরকার। শিল্পীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া, তাদের কাজের বিপণন, বিভিন্ন পুজো কমিটির সঙ্গে চুক্তি, সবকিছুই দেখাশোনা করবে রাজ্য।

এর ফলে বাড়বে কর্মসংস্থানের সুযোগ। এর ফলে এখানকার আলোকশিল্পীরা ভারতের বিভিন্ন জায়গায় ও বিদেশেও যেখানে যেখানে দুর্গা পুজো হয়, সেখানে নিজেদের কলার নিদর্শন করার সুযোগ পেটে পারবেন।

মিষ্টি হাব, মসলিন হাবের পর আলোর হাব তৈরীর সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য সরকার। নিঃসন্দেহে এক অভিনব উদ্যোগ। এর মাধ্যমে এক শ্রেণীর লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। এছাড়া এখানকার এই ঐতিহ্যবাহী শিল্পও এক অন্য মাত্রা পাবে।