Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


September 12, 2018

Bangla Govt to focus on local theme-based promotion of tourist spots

Bangla Govt to focus on local theme-based promotion of tourist spots

For the purpose of promotion of tourist spots, the State Tourism Department has decided to focus on the intrinsic value of each place.

Bangla is famous for its natural and heritage spots. To increase their popularity, according to departmental officials, a local theme-based approach will be taken. It would focus on the intrinsic value of each particular place.

The nature spots have been kept in the category of ‘Sea to the Sky’. Tea tourism, Royal Bengal Tiger and the historical places would have their own theme-based circuits.

There is also likely to be a folk music-based circuit, centred on the bauls. The State Government is also making efforts to brand Durga Puja and its related aspects (heritage, food, decorations, pandals, Durga Puja Carnival on Red Road) as one of theme-based approaches.

Another decision taken by the Tourism Department, according to officials, is to send all information for tourists related to Durga Puja to consulates and both star and non-star hotels.


সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮

রাজ্য পর্যটনের নতুন থিম 'পরিবর্তনের পথে নতুন চোখে বাংলা’

রাজ্য পর্যটনের নতুন থিম 'পরিবর্তনের পথে নতুন চোখে বাংলা’

রাজ্যের পর্যটন শিল্পের প্রচারে স্থান মাহাত্ম্যকে তুলে ধরার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

এ রাজ্যে প্রাকৃতিক ও ঐতিহাসিক বৈচিত্র অনিঃশেষ। অভিযাত্রীদের কাছে প্রতিটি এলাকার রূপ যথাযথ ভাবে তুলে ধরতে পারলে নিজস্বতা বজায় থাকবে। প্রধানত সেই জন্য দীর্ঘদিনের পরীক্ষানিরীক্ষার পরে স্থানমাহাত্ম্য এবং নিজস্বতার উপরে জোর দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

পর্যটন দফতর সূত্রের খবর, নতুন কর্মসূচি পুরোপুরি থিম-নির্ভর। যার স্লোগান: ‘পরিবর্তনের পথে নতুন চোখে বাংলা’। প্রাকৃতিক সম্পদে ঠাসা পর্যটন কেন্দ্রগুলিকে ‘সমুদ্র থেকে আকাশ’ ক্যাটিগরিতে রাখা হয়েছে। চা, বাংলার রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার এবং ঐতিহাসিক কেন্দ্রগুলিকে নিয়ে পৃথক থিম-নির্ভর প্রচারের পথে হাঁটতে চাইছে রাজ্য। তা ছাড়াও থাকছে বাউল-সহ লোকশিল্পকে কেন্দ্র করে সম্ভাব্য পর্যটন-পরিকল্পনা।

এ ছাড়া দুর্গাপুজোকে পৃথক ভাবে ব্র্যান্ডিং করতে চাইছে রাজ্য। পুজোর সময় শহরের নানা বৈচিত্র, রূপ, খাওয়াদাওয়া, রেড রোডের কার্নিভাল ইত্যাদি প্রচারে রাখতে চাইছে দফতর।

সংশ্লিষ্ট সূত্রের দাবি, পুজোর আগেই শহরের দূতাবাস এবং তারকা বা বাজেট হোটেলগুলিতে পুজো-টুরিজমের যাবতীয় তথ্য পৌঁছে দেওয়ার কৌশল নেওয়া হয়েছে।