Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


September 7, 2018

Bangla Govt turns remote hamlet of Natungram into Rural Craft Hub

Bangla Govt turns remote hamlet of Natungram into Rural Craft Hub

The State Micro, Small and Medium Enterprises & Textiles department, in association with UNESCO, has developed Natungram in Purba Bardhaman as one of the Rural Craft Hubs of Bangla.

This has given a major boost to the wooden doll industry for which the village is famous, and is now becoming globally famous, thanks to the earnest efforts of the Trinamool Congress Government. Rural Craft Hub is a joint project of the Bangla Government and UNESCO, and is a brainchild of Chief Minister Mamata Banerjee.

The formation of the hub has helped the artisans, particularly the women, to become self-reliant. West Bengal Khadi and Village Industries Board (WBKVIB) has developed a Folk Art Centre in the village, with lodging facility, that is equipped with all basic amenities.

Visitors at Natungram can stay at the centre and witness the artisans at work, explore the Folk Art Centre to learn about the craft and its techniques, and learn the stories behind. The hub is located in the region of Agradwip. The nearest railway stations are Agradwip or Katwa.

Every year, the artisans of Natungram celebrate their tradition of doll-making through a village fair in January. The next Wooden Doll Festival will take place from January 18 to 20, 2019. There are plans to make the festival bigger from next year, now that the UNESCO-recognised Rural Craft Hub is in place.

Courtesy the residential Folk Art Centre, people can now visit the place throughout the year to explore the process of carving the wooden dolls. There are about 60 families pursuing the traditional art form. Whereas the men do the carving and chiselling, the women do the painting.


সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮

নতুনগ্রামে গ্রামীণ হস্তশিল্পের হাব

নতুনগ্রামে গ্রামীণ হস্তশিল্পের হাব

পূর্ব বর্ধমানে অবস্থিত নতুনগ্রামে একটি রুরাল ক্রাফ্ট বা গ্রামীণ হস্তশিল্পের হাব গড়েছে রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প এবং বস্ত্র দপ্তর ও ইউনেস্কোর যৌথ উদ্যোগে এই হাব গড়ে উঠেছে। কাঠের পুতুল তৈরীর জন্য বিখ্যাত নতুনগ্রাম। এই উদ্যোগের ফলে বিশ্বব্যাপী খ্যাতি পাচ্ছে এই প্রান্তিক গ্রামটি।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মস্তিষ্ক প্রসূত এই ‘গ্রামীণ হস্তশিল্পের হাব’ প্রকল্প রাজ্য সরকার ইউনেস্কোর সাথে যৌথ উদ্যোগে বাস্তবায়িত করে। এর ফলে উপকৃত হয়েছেন রাজ্যের লক্ষ লক্ষ হস্তশিল্পী। বিশেষ করে মহিলারা স্বনির্ভর হয়েছেন এই প্রকল্পের মাধ্যমে।

পশ্চিমবঙ্গ খাদি ও গ্রামোদ্যোগ পর্ষদ এই গ্রামে একটি লোকশিল্প কেন্দ্র গড়ে তুলেছে। সেখানে থাকার ব্যবস্থার পাশাপাশি রয়েছে সবরকম সুযোগ সুবিধা। এই কেন্দ্রে থেকে পর্যটকরা হস্তশিল্পীদের কাজ চাক্ষুষ করতে পারবেন। এই হাবটির নিকটতম রেলস্টেশন হল অগ্রদ্বীপ বা কাটোয়া।

প্রতি বছর জানুয়ারী মাসে শিল্পীদের তৈরী কাঠের পুতুলের পসড়া নিয়ে একটি মেলার আয়োজন করা হয়। আগামী বছর এই মেলা হবে ১৮-২০ জানুয়ারি। এই গ্রামের ৬০টি পরিবার এই শিল্পের সাথে যুক্ত।

এই হাবটি গড়ে ওঠার ফলে এখন বছরভর পর্যটকরা নতুনগ্রামে আসতে পারবেন। তারা শিখতে পারবেন পুতুল বানানোর পদ্ধ্বতি সম্বন্ধে। গ্রামের কাঠের খোদাই আর কাটাই এর কাজ করেন পুরুষ কারিগররা এবং পুতুলের ওপর রঙের কাজ করেন মহিলারা।