Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


September 11, 2018

Vivek Tirtha – A tribute to the great saint

Vivek Tirtha – A tribute to the great saint

Vivek Tirtha, named after Swami Vivekananda, has been planned to be one of the premier institutes of the country, comprising of a centre for value education, a school of languages, a computer institute, a digital library and more. It is being set up in New Tow. The formal name of the place is Ramakrishna Mission Vivekananda Centre for Human Excellence and Social Sciences.

This top-class centre of education is being set up on land given by the Trinamool Congress Government. In fact, it was Chief Minister Mamata Banerjee who had laid the foundation stone of the institute, on November 11, 2014, and had also named it ‘Vivek Tirtha’.

The project will cost about Rs 172 crore. Five acres has been allotted beside Eco Park.

The centre will have a 10-storey building to house the administrative office, seminar halls and an auditorium, with a capacity of 1,400. The main building will be designed after the Chicago Art Institute, where Swami Vivekananda had delivered his famous speech on September 11, 1893.

There will be four other buildings, to be named after four famous foreign disciples of Swami Vivekananda – Sister Nivedita, JJ Goodwin, Ole Sara Bull and Josephine McLeod.

An important feature of the programmes proposed to be offered by the Centre of Human Excellence include a retreat for professionals and people from all walks of life like sweepers, rickshaw pullers, labourers and shopkeepers. There will also be a course on citizenship training and value education for government and corporate employees. There will be courses on how to overcome fear and failure.


সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৮

বিবেক তীর্থ - স্বামীজী স্মরণে বাংলার প্রয়াস

বিবেক তীর্থ - স্বামীজী স্মরণে বাংলার প্রয়াস

রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, নজরুল ইসলাম-এর স্মৃতিতে মুখ্যমন্ত্রীর উদ্যোগে ইতিমধ্যেই নিউটাউনে গড়ে উঠেছে ‌রবীন্দ্র তীর্থ এবং নজরুল তীর্থ। এবার সেই একইভাবে ‌রবীন্দ্র তীর্থ, নজরুল তীর্থের পর নিউটাউনে গড়ে উঠবে বিবেক তীর্থ। স্বামী বিবেকানন্দ-এর স্মৃতির উদ্দেশ্যেই এই তীর্থ গড়ে তোলা হবে বলে জানানো হয়েছে।

রবীন্দ্র এবং নজরুল তীর্থের মতই এই বিবেক তীর্থেও থাকবে অডিটোরিয়াম, বিবেকানন্দের ওপর গবেষণা করার সুবিধা, লাইব্রেরি সহ ভাষাশিক্ষা কেন্দ্র, কম্পিউটার ইনস্টিটিউট, ডিজিটাল লাইব্রেরি ইত্যাদি।

ইকো পার্কের ঠিক বাইরেই এই বিবেক তীর্থ গড়ে তোলা হবে। শিকাগোর আর্ট প্রতিষ্ঠানের আদলে গড়ে তোলা হবে এই বিবেক তীর্থ। খুব দ্রুত গতিতেই এগোচ্ছে বিবেক তীর্থের কাজ।

আশা করা যায় নিউটাউনকে নতুন মাত্রা এনে দেবে এই তিন তীর্থ। আগামী প্রজন্মের মধ্যে স্বামীজীর আদর্শ প্রসারে কাজ করবে এই কেন্দ্র।