Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


October 8, 2018

Mamata Banerjee receives over 10,000 invites for Durga Puja inauguration

Mamata Banerjee receives over 10,000 invites for Durga Puja inauguration

Durga Puja is the biggest festival of Bangla. Like every year, most puja committees in the State, and outside, want Chief Minister Mamata Banerjee to grace the inauguration of their puja pandal.

Nabanna has been flooded with requests from puja committees. More than 10,000 requests have already reached the CMO. With less than seven days to go for Durga Puja, the invites are still pouring in. So much so that organisers want Mamata Banerjee to send a letter with her good wishes, if she is unable to grace the inauguration physically.

Apart from Kolkata, these requests have come from Sundarbans in the south to Terai-Dooars in the north of the State. Requests have poured in from Uttar Pradesh, Gujarat, Jharkhand, Bihar and Odisha.

It is amply clear that when it comes to puja inauguration, Mamata Banerjee remains the top favourite of puja committees.


অক্টোবর ৮, ২০১৮

শারদোৎসবে উদ্বোধক হিসেবে সবচেয়ে বেশি চাহিদা মমতারই

শারদোৎসবে উদ্বোধক হিসেবে সবচেয়ে বেশি চাহিদা মমতারই

বাঙালির শ্রেষ্ঠ উৎসবের উদ্বোধক হিসেবে এবারও সবচেয়ে বেশি চাহিদা সেই একজনকে ঘিরেই। তিনি বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতা তথা গোটা রাজ্য তো বটেই, ভিন রাজ্য থেকেও প্রবাসী বাঙালিদের আবদার এসে পৌঁছচ্ছে প্রশাসনিক সদর দপ্তর নবান্নে।

পুজোর বাকি আর মাত্র সাতদিন, কিন্তু মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্বোধক হিসেবে চেয়ে চিঠি আসার বিরাম নেই প্রশাসনিক ভবনের ১৪ তলায়। মুখ্যমন্ত্রী না আসতে পারলেও, শুভেচ্ছাবার্তা পেলেও চলবে, এমন বায়নাও করে রেখেছেন অনেকে। সূত্রের খবর, ‘দিদি’কে উদ্বোধক হিসেবে চেয়ে এখনও পর্যন্ত আমন্ত্রণপত্র এসেছে ১০ হাজারেরও বেশি। শুধুমাত্র তাঁর শুভেচ্ছাবার্তা চেয়ে আসা চিঠির সংখ্যা পাঁচ হাজারেরও বেশি।

মহানগরের টালা থেকে টালিগঞ্জ, গঙ্গাপারের বালি থেকে বালিগঞ্জ পর্যন্ত পুজো উদ্যোক্তারা তো রয়েছেনই, উত্তরের তরাই-ডুয়ার্স থেকে দক্ষিণের সুন্দরবন পর্যন্ত এমন কোনও জেলা, মহকুমা এবং ব্লক বাদ যায়নি, যেখান থেকে আমন্ত্রণপত্র এসে পৌঁছয়নি নবান্নে। এ তো গেল রাজ্যের বৃত্তান্ত! উদ্বোধক হওয়ার আবদার এবং শুভেচ্ছাবার্তা পাঠানোর বায়না সম্বলিত ভিন রাজ্যের চিঠিও আসছে নবান্নে। তাতে যেমন রয়েছে রাজধানী দিল্লি, তেমনই রয়েছে বিজেপি শাসিত উত্তরপ্রদেশ, গুজরাত, ঝাড়খণ্ড, বিজেপি আর সহযোগীদের রাজ্য বিহার এবং প্রতিবেশী ওড়িশাও। হাজারো ব্যস্ততার মধ্যে সেই বায়না মেনে একের পর এক শুভেচ্ছাবার্তায় সই করে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

সবমিলিয়ে শারদোৎসবের উদ্বোধক হিসেবে এবারও সবাইকে ছাপিয়ে মূল আকর্ষণ ৩০বি, হরিশ চ্যাটার্জি স্ট্রিটের টালির চালের বাসিন্দাই।