Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


October 12, 2018

Sumptuous Bengali cuisine on offer at Cafe Ekante this Durga Puja

Sumptuous Bengali cuisine on offer at Cafe Ekante this Durga Puja

Café Ekante, Newtown’s pride restaurant will offer special buffet menu on four days from Soshthi to Nabami. On Soshthi, Aampora Shorbat will be the welcome drink. This will be followed by masala beguni, kumro phuler bora, murgir gandharaj tikka and macher sorshe tikka as starters.

The main course includes Jhoori aloo bhaja, chanar dalna, doi potol, muh mohan, thakur barir pathar mangso, home-style chicken curry, parsey macher jhol, sada bhat and basanti pulao, radhaballavi, aloo kabli chat, papad and amsatto khejurer chatni. This will be followed by dessert where misti doi, rosogolla, gajorer halwa and misti paan will be served.

On Saptami, the welcome drink will be jal jeera. In the main course, there will be ekante kosha mangsho and pabda macher jhal among others. There will be langcha and dudhi ka halwa along with misti doi as dessert.

On Ashtami, in the main course, there will be goalandrer murgi, mutton dakbunglow and chingrir malai curry. There will be hari moti pulao, chalta chutney, bori diye lal shaak bhaja and so on.
On Nabami, one can have mutton roganjosh, sorsey mach, kachalonka murgi in the main dish. Besides mishti doi, there will be pantua, halwa and misti pan in the dessert.

Expert chefs in Café Ekante have prepared the menu. The restaurant has been thoroughly renovated and the capacity has been increased to 62 seats. The ambience is bound to attract guests. On the island, a model of Maa Durga, made of glass fibre, will be installed and the whole area will be decorated with soothing lights.


অক্টোবর ১২, ২০১৮

দুর্গা পুজোয় কাফে একান্তে-তে বাঙালি খাবারের সম্ভার

দুর্গা পুজোয় কাফে একান্তে-তে বাঙালি খাবারের সম্ভার

নিউটাউনের গর্ব কাফে একান্তে রেস্তোরাঁয় আগামী ষষ্ঠী থেকে নবমী পর্যন্ত বিশেষ বুফের আয়োজন করেছে। ষষ্ঠীতে আমপোড়া শরবত দিয়ে স্বাগত জানানো হবে অতিথিদের। এরপর স্টার্টারে থাকবে মসলা বেগুনী, কুমড়ো ফুলের বড়া, মুর্গীর গন্ধরাজ টিক্কা ও মাছের শর্ষে টিক্কা।

মেইন কোর্সে থাকছে ঝুরি ঝুরি আলু ভাজা, ছানার ডালনা, দই পটল, মুগ মোহন, ঠাকুর বাড়ির পাঁঠার মাংস, মুর্গীর ঝোল, পার্শে মাছের ঝোল, ভাত, বাসন্তী পোলাও, রাধাবল্লবী, আলু কাবলি চাট, পাঁপড়, আমসত্ত্ব-খেজুরের চাটনি। এবং শেষ পাতে থাকছে মিষ্টি দই, রসগোল্লা, গাজরের হালুয়া ও মিষ্টি পান।

সপ্তমীতে স্বাগত জানানো হবে জলজিরার শরবত দিয়ে। মেইন কোর্সের আকর্ষণ থাকছে একান্তে কষা মাংস, পাবদা মাছের ঝাল। শেষে থাকবে ল্যাংচা, দুধির হালুয়া এবং মিষ্টি দই।

অষ্টমীতে মেইন কোর্সের আকর্ষণ হল, গোলান্দ্রের মুর্গী, পাঁঠার ডাকবাংলো ও চিংড়ি মাছের মালাইকারি। এছাড়া থাকবে, হরিমতি পোলাও, চালতার চাটনি, বড়ি দিয়ে লাল শাক ভাজা।

নবমীর আকর্ষণ মটন রোগানজোশ, শর্ষে মাছ, কাঁচালঙ্কা মুর্গী। শেষপাতে থাকবে পান্তুয়া, হালুয়া এছাড়া অন্যান্য সুস্বাদু পদ।

কাফে একান্তের অভিজ্ঞ শেফরা এই মেনু তৈরী করেছেন। এই রেস্তোরাঁকে পুরো নতুন ভাবে মেরামত করা হয়েছে এবং আসনসংখ্যা বাড়িয়ে ৬২ করা হয়েছে। পুরো চত্বরটি মনোরম আলো দিয়ে সাজানো হয়েছে।