Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


February 1, 2019

Twenty Five things Mamata Banerjee said about the Union Budget 2019

Twenty Five things Mamata Banerjee said about the Union Budget 2019

1.       We feel this is an expiry budget. This is a budget of desperation. This budget will not be implemented.

2.       The tenure of this government will be over in one month. After elections, a new government will come and present a new budget.

3.       I am not an economist, but I have practical knowledge and ideas. Nobody knows what is the financial situation of the country. It is obvious, economic emergency is going on in the country.

4.       Where will this money come from? How will it be managed?

5.       This government has no moral authority to put forth this budget. After expiry is there any value? This is a value-less budget.

6.       Why has this government not announced a single agenda for farmers for the last four and a half years?

7.       We have already started the ‘Krishak Bandhu’ scheme. A similar scheme has been announced today. Why did not announce these schemes earlier?

8.       We have a successful scheme ‘Swasthya Sathi’ for health insurance. We have opted out of ‘Ayushman Bharat’ scheme as Modi is using it for his own publicity.

9.       They have not given any extra amount for MGNREGA scheme. The funds are lower than revised estimate. People are not getting their dues.

10.   They have decreased funds for Swachh Bharat Mission by 25 per cent.

11.   Within the last one year, two crore jobs have been lost. And now there has been a cut of 13.4% in Skill Development Budget. This is a show-off budget.

12.   Scheduled castes and scheduled tribes are deprived sections. And there has been a significant decrease in funds allocated.

13.   Other vulnerable groups – there has been a 20.8% decrease in allocation.

14.   Ujjwala Scheme – decrease of 14.9% in allocation.

15.   NPAs have increased five times. Banking system has been destroyed.

16.   They say they will give loans in 59 seconds. Who will get the loans?

17.   Allocation for energy sector is less by 4.4%.

18.   The doctor has come after death. This budget is a cheating. All show-off.

19.   Central government and State government are both elected by the people. They cannot announce programmes on subjects which come under the State List. They are running a parallel government. This is against federal structure.

20.   They are promoting schemes with their own pictures, although States are funding these schemes. The Centre collects taxes from the States and gives us back a pittance.

21.   I thought they might even announce transferring Rs 15 lakh to people.

22.   This is a farce. This is nothing but a BJP manifesto to cheat the people.

23.   Even I can be arrested for voicing my opinion on the Budget today. Tomorrow they may even send a notice to the person who cooks at my home. Keep sending notices. Let me see how many you can send.

24.   Fight us politically. Why are you attacking us on personal front? Why are you humiliating people?

25.   Before announcing a scheme, one must make sure there are enough funds. Even while chalking out programmes in our State we do so. Where will they get the money?

File Image


ফেব্রুয়ারি ১, ২০১৯

কেন্দ্রের পেশ করা বাজেট মূল্যহীনঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কেন্দ্রের পেশ করা বাজেট মূল্যহীনঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

আজ কেন্দ্রীয় সরকারের পেশ করা বাজেটেকে মূল্যহীন বলে কটাক্ষ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্য বিধানসভায় সাংবাদিক সম্মেলন করেন তিনি।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমাদের মনে হয় এটি একটি এক্সপায়ারি বাজেট। এটি একটি বেপরোয়া বাজেট। এই বাজেট কার্যকরী হবে না । এই সরকারের সময়সীমা আর মাত্র একমাস। নির্বাচনের পর নতুন সরকার নতুন বাজেট পেশ করবে। আমি কোন অর্থনীতিবিদ নই, কিন্তু আমার কিছু বাস্তব অভিজ্ঞতা আছে। কেউ কি জানে না ভারতের বর্তমান অর্থনৈতিক পরিস্থিতি কি? দেশে এখন অর্থনৈতিক জরুরী অবস্থা চলছে। কোথা থেকে টাকা আসবে এই বাজেটের? কি করে ম্যানেজ হবে? কোনও প্রকল্প ঘোষণা করার আগে, পর্যাপ্ত টাকার যোগান রাখতে হয়। আমরা আমাদের রাজ্যের কোনও প্রকল্প ঘোষণা করার আগেও এই কাজটা করি। ওনারা কথা থেকে টাকা জোগাড় করবেন?

মুখ্যমন্ত্রী কেন্দ্রীয় সরকারের এই হতাশাপূর্ণ বাজেট বিষয়ে বলেন, এই বাজেট পেশ করার কোন নৈতিক অথরিটি নেই এই সরকারের। সময়সীমা পেরিয়ে যাওয়ার পর এই বাজেটের কোন মূল্য থাকবে? এটি একটি মূল্যহীন বাজেট। গত সাড়ে চার বছরে কেন এই সরকার কৃষকদের জন্য একটাও উদ্যোগ নেয়নি?”

তিনি আরও বলেন, আজ যেসব প্রকল্প ঘোষণা হল সেগুলো আমরা আগেই চালু করেছি। এটা আমাদের কৃষক বন্ধু প্রকল্পের একটা ফটোকপি। এটি মানুষের সঙ্গে ধোঁকা। এই বাজেট মানুষকে বোকা বানানোর জন্য বিজেপির ইস্তাহার। কেউ মারা যাওয়ার পর ডাক্তার আসছে। এই বাজেট পুরো মানুষকে বোকা বানানোর জন্য।

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রচারমূলক রাজনীতির বিরুদ্ধে তিনি বলেন, আমাদের স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প যথেষ্ট সফল। আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প থেকে বেরিয়ে এসেছি কারণ মোদী নিজের প্রচার করছে এই প্রকল্পের মাধ্যমে। রাজ্য সরকার খরচ করলেও কেন্দ্রীয় সরকার সমস্ত প্রকল্প প্রচার করছে নিজেদের ছবি দিয়ে। রাজ্য সরকারের থেকে আদায় করা করের বিপুল অংশ নিয়ে যায় কেন্দ্র এবং বিনিময়ে ছিটেফোঁটা ফেরত দেয়।

কর্মসংস্থানের বিষয়ে তিনি বলেন, গত এক বছরে ২ কোটি মানুষ বেকার হয়েছে। এখন আবার বাজেটে দক্ষতা উন্নয়ন খাতে ১৩.৪ শতাংশ বরাদ্দ কমানো হয়েছে। এটি শো-অফ বাজেট। ১০০ দিনের কাজে কোনও অতিরিক্ত টাকা দেওয়া হয়নি। সংশোধিত হিসেবের থেকেও কম টাকা দেওয়া হয়েছে। মানুষ তাঁদের প্রাপ্য টাকা পাচ্ছে না।

ফাইল চিত্র