Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


July 18, 2018

Bengal Govt to promote bio-fertilisers and technology to increase productivity

Bengal Govt to promote bio-fertilisers and technology to increase productivity

The Bengal Government is keen on increasing the productivity of various plants by administering bio-fertilisers and other organic manures. Bio-fertilisers will also save people from the toxic substances used in chemical fertilisers.

The Biotechnology Department is implementing a series of programmes in this regard. Scientists and research fellows are conducting researches on bio-fertilisers.

The Government is planning to open a unit each in all the districts to provide technical assistance to farmers on increasing the productivity of what they produce using bio-fertilisers.

Scientists are also conducting tissue culture as a part of their research work at the district level to increase the productivity of plants.

The department is planning to conduct research on increasing the productivity of foodgrains and vegetables in comparatively unfertile areas of Bankura, Birbhum and Purulia.

The department has also decided to carry out research on increasing the productivity of cattle. The State Government will provide assistance to those who rear cattle.

Source: Millennium Post

Image source


জুলাই ১৮, ২০১৮

জৈব সার ও প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষি উৎপাদন বাড়াতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার

জৈব সার ও প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষি উৎপাদন বাড়াতে উদ্যোগী রাজ্য সরকার

জৈব সার ও অর্গানিক ম্যানিওর ব্যবহার করে কৃষি উৎপাদন বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে রাজ্যের সরকার। রাসায়নিক সারের বদলে জৈব সার ব্যবহার করলে মানুষের স্বাস্থ্যের কোনও ক্ষতি হবে না, তাই এই উদ্যোগ রাজ্যের।

রাজ্যের জৈবপ্রযুক্তি দপ্তর এ বিষয়ে ইতিমধ্যেই অনেক পদক্ষেপ নিয়েছে। বিজ্ঞানী ও গবেষকরা জৈব সার নিয়ে নানারকম পরীক্ষা নিরীক্ষা করছেন। এছাড়া, ফলন বাড়াতে টিস্যু কালচার নিয়েও জেলা স্তরে গবেষণা করছেন বিজ্ঞানীরা। বাঁকুড়া, বীরভূম ও পুরুলিয়ার মতো অনুর্বর জমিতেও খাদ্যশস্য ও আনাজের উৎপাদন বাড়াতে গবেষণা করছে দপ্তর।

জৈব সার ব্যবহার করে ফলন কি করে বাড়ানো যায়, তার প্রশিক্ষণ দিতে প্রতিটি জেলায় কারিগরি সহায়তা কেন্দ্র খোলার চিন্তাভাবনা করছে রাজ্য সরকার।

পাশাপাশি, গবাদি পশুর উৎপাদনশীলতা বৃদ্ধির জন্যও গবেষণা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য। এর জন্য যাঁদের গবাদি পশু আছে, তাদের সহায়তা প্রদান করবে রাজ্য সরকার।