Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


January 19, 2019

United India Rally: Mamata Banerjee gives a clarion call to remove BJP from power at Centre

United India Rally: Mamata Banerjee gives a clarion call to remove BJP from power at Centre

Trinamool Chairperson Mamata Banerjee today gave a clarion call to remove BJP from power at Centre during the historic ‘United India Rally’ at Brigade Parade Grounds.

Leaders of several Opposition parties were present today at today’s rally. Every leader spoke of the tough times the country is passing through, and the need to remove BJP from power at Centre.

Highlights of Mamata Banerjee’s speech:

  • Around 24 political parties are present today at this historic ‘United India Rally’.
  • Modi’s expiry date (like medicines) is coming soon. A new dawn is coming. We have taken the pledge to work together.
  • Bangla’s land is a holy land. It is the land of freedom struggle as well as the renaissance. Bangla has shown way to the country during the freedom struggle as well as during the cultural reawakening.
  • Some people are trying to destroy the country. As Arvind Kejriwal said, what Pakistan could not do in 70 years, the Government at Centre managed to do in just five years. They have managed to drive a wedge between communities. They have destroyed all the institutions. They have started politics of hate. They have destroyed the country’s economy.
  • Banks are in danger, the market is in danger, prices of goods are skyrocketing and BJP is smiling.
  • While India is suffering, the BJP is busy staging riots. There is a slump in the economy and democracy, while BJP is bossing around.
  • They are fighting elections with looted money. They have looted the people during demonetisation and by hastily imposing GST. Now they are telling that everybody else is corrupted. He claims only he is honest and the rest are dishonest.
  • Jan Dhan, NPA, Rafale, insurance are big scams. There are other big scams as well. Those who are dishonest are preaching about integrity. They are talking about honesty?
  • How much money did they have five years ago and how did their wealth increase? I don’t want to make personal comments but they initiated it. I believe in politics of courtesy ut they do not care about it. They crossed the Lakxman Rekha. They tried to implicate Sonia ji, Lalu ji, Akhilesh, Mayawati ji and even me. Why will they expect to be spared?
  • If you are with them, you are labelled as honest or else you are a bunch of thieves! They are trying to scare us. This is what happens to people who know that the end is near.
  • While the State Government is paying the money for farmers’ crop insurance, the BJP is promoting itself. They are claiming that they are doing everything. If that is true, what is the need of the State Government then?
  • According to the Constitution, the State Government is also elected by people, just like the Central Government. Now they are not even going by the Constitution. They are changing the history, the geography, the Constitution and even democracy. When everything is changing, why will the BJP Government not change?
  • The BJP is trying to buy MLAs of the Karnataka Assembly. Government is elected by the common people. They do not even help the common people.
  • They promised to provide jobs to two crore people. On the other hand, two crore people have lost their jobs in 2018. They have only lied to the people.
  • They are killing people in the name of NRC. They are oppressing people. They are doing whatever they want. This cannot continue anymore. At times, people have to take a stand.
  • Indira Gandhi and Sheikh Mujibur Rahman celebrated the Vijay Utsav of creation of Bangladesh at this venue. This is where Pandit Nehru, Atal Ji and the Left parties organised rallies. We have organised this rally to provide justice to the people of the country. This gathbandhan will create a new history for the nation.
  • Today, everybody should stand united because the nation demands it. Region is not important, the nation is, and this should be borne in mind. Collective leadership is very essential.
  • People are asking who will be the leader. There is no dearth of leaders here. Their party is leaderless, so there is just one Prime Minister. In our gathbandhan, we all are leaders, we all are workers, we all are the subjects and we all are the kings. This is democracy. We will later finalise who will be the Prime Minister. The time has not yet come.
  • Our meetings start from today. Whether it is Chandrababu Naidu or Kejriwal or Farooq Abdullah Ji, we will go for meetings whenever they call us.
  • Even as we are addressing a meeting here, the Centre has called all the agencies in Delhi for a meeting. They will decide now how to counter us. They can do whatever they feel like. We have respect for the CBI. BJP has been instrumental in downgrading them. Not all officers are bad. There are good people and bad people and goodie goodie people in every place.
  • They have discredited the CBI, RBI and the ED. They have destroyed the banks. Now, if you vote for the BJP, your savings in the banks may not be returned to you.
  • They are even doing politics with the BSF and the CRPF. They are lynching people.
  • One of our poets went to a programme in Assam. He was assaulted by the BJP activists for four hours. This does not happen in Bangla.
  • One of their main agenda is to come and provoke riots in Bangla. We will not allow them to incite riots in Bangla in the name of Rath Yatra. This is my promise to the people. We will fulfil that promise.
  • Wherever we organise rallies, they want to organise a meeting there after a few days. I want to tell them, even if you organise meetings 365 days a year, you will not win even the two seats you have in this State.
  • BJP will not win in Bangla or Bihar. Mayawati Ji and Akhilesh have come together in Uttar Pradesh. The BJP will not win there. National Conference will perform well in Jammu & Kashmir. AAP will win in Delhi. I will request Hardik and Jignesh to work with conviction and courage in Gujarat. BJP will not fare well in north-eastern States. We have to prepare mentally to defeat the BJP. They do not consult anyone, they do not believe in democracy.
  • Enough of Achhe Din, it is time to bid goodbye to BJP. It is time for change at Centre. For the sake of youths, farmers, labourers, and people of the country, we have to defeat the BJP.
  • It is not important who will become the Prime Minister. We want the BJP to go. After that we will decide who will become the PM. We have to build a strong government.
  • I want to ask the BJP, have you given respect to any leader? What about Shatrughan Sinha? Jaswant Singh? Arun Shourie? Rajnath Singh? Nitin Gadkari? Elections are approaching, so you are talking of collective leadership. After elections, you will forget about it and throw away other leaders.
  • We are against divisive politics. We are against hate. We do not want bloodlust. We are against discrimination. We want constructive politics, not destructive agenda.
  • Hindu stands for sacrifice, Muslims represent integrity. Christians stand for love and Sikhs represent validaan. This is our country. A person who can work for all, without discrimination, will be the leader of the nation.
  • BJP is leading the country towards a disaster. More than 2 crore people have lost their jobs. In Bangla we have reduced unemployment by 40%. They are promising to double farmers’ income by 2022. We have already tripled it in Bangla.
  • We are not alone. All the parties here today, 23 parties, will work together to defeat the BJP and work for development. There are 2-4 parties more who will not support the BJP. We hope they will work for the country.
  • Let them fight us politically. If they cannot deliver, they should give up their power. People of India have rejected them.
  • We will organise another rally at Brigade, after a new government is formed, and BJP is defeated. I request all the leaders present today to come back after winning the elections. A change is imminent. No one can stop that.
  • They are terrorising the media. They have destroyed jobs. This is the second struggle for independence. I have seen many leaders but never seen a more fascist government. He is like Hitler. People do not have any rights.
  • We have to fight. BJP hatao, desh bachao. Jai Hind. Vande Mataram.

জানুয়ারী ১৯, ২০১৯

ব্রিগেডের মঞ্চে বিজেপিকে উৎখাত করার ডাক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

ব্রিগেডের মঞ্চে বিজেপিকে উৎখাত করার ডাক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

আজ ঐতিহাসিক ব্রিগেড সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেশের তাবড় তাবড় বিরোধী দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন এই সমাবেশে। ব্রিগেডের মঞ্চ থেকে বিজেপিকে উৎখাত করার ডাক দেন সকলেই।

দেশের অর্থনৈতিক সমস্যা থেকে প্রতিষ্ঠানের স্বাধীনতা খর্ব করা, মানুষের কণ্ঠরোধ থেকে একের পর এক জনবিরোধী সিদ্ধান্ত – নানা ইস্যুতে কেন্দ্রকে আক্রমণ করেন তৃণমূলনেত্রী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্যের কিছু অংশ:

 

  • আজকের এই ইউনাইটেড ইন্ডিয়ার মঞ্চে ২৩-২৪ টি দল অংশ নিয়েছে। আগামীদিনে মোদী সরকারের এক্সপায়ারি ডেট শেষ হয়ে যাবে। এবার নতুন সকাল আসবে, সবাই একসাথে কাজ করব. এটাই আমাদের শপথ।
  • বাংলার মাটি পবিত্র, বাংলার মাটি স্বাধীনতা আন্দোলনের, নবজাগরণের পথ দেখিয়েছে, দেশের বিপদে পথ দেখিয়েছে, সংস্কৃতি-সভ্যতার আন্দোলনের পদ দেখিয়েছে।
  • কিছু লোক আজ ভারতের সর্বনাশ করার চেষ্টা করছে। অরবিন্দ কেজরিওয়াল বলছেন, ৭০ বছরে পাকিস্তান যা করতে পারেনি ৫ বছরে এই সরকার তা করে দেখিয়েছে। একে অপরকে ভেঙে দিয়েছে, সব প্রতিষ্ঠান নষ্ট করে দিয়েছে, বিদ্বেষমূলক রাজনীতি শুরু করেছে।
  • সারা ভারতকে সর্বশান্ত করে দিচ্ছে। ব্যাঙ্ক ধুঁকছে, বাজার ঝুঁকছে, দাম বাড়ছে আর বিজেপি হাসছে। দাঙ্গায় ভারত সর্বশান্ত, আর বিজেপি দাঙ্গায় ব্যস্ত।
  • নোট বাতিল, জিএসটি চালু করে পুরো ভারত লুঠ করে নিল। আর বলছে সবাই দুর্নীতিগ্রস্ত। উনি একা সৎ, আর বাকি সবাই অসৎ। জনধন, এনপিএ, রাফাল, বীমা নিয়ে বড় কেলেঙ্কারি হয়েছে। অনেক কেলেঙ্কারি হচ্ছে দেশে। চোরের মায়ের বড় গলা। সততা দেখাচ্ছে।
  • নির্বাচনের নামে টাকা লুঠ করছে। ওদের কত টাকা ছিল আর এই ৫ বছরে কত টাকা হয়েছে?
  • রাজনীতিতে একটা সৌজন্য আছে, আপনারা মানেন নি, রাজনীতিতে একটা লক্ষ্মণরেখা আছে আপনারা তাও মানেন নি। আপনি সোনিয়া জি, লালুজি, অখিলেশ, মায়াবতি জি, আমি কাউকেই ছাড়েননি, তাহলে আপনাকে কেন সবাই ছেড়ে দেবে?
  • আপনার সাথে থাকলে ভাল, না থাকলেই তারা চোর! ভয় দেখাচ্ছে! বিনাশকালে বুদ্ধিনাশ
  • কৃষকদের শস্য বিমার টাকা দিচ্ছে রাজ্য সরকার আর ছবি বিলোচ্ছে বিজেপি, আর বলছে সব ওরা করে দিচ্ছে। ওরাই যদি সব করে দেবে তাহলে রাজ্য সরকারের কি প্রয়োজন? সংবিধান অনুযায়ী, কেন্দ্রের মত রাজ্য সরকারও সাধারণ মানুষের দ্বারা নির্বাচিত, এখন ওরা সংবিধানও মানছে না।
  • ইতিহাস-ভূগোল-সংবিধান-গণতন্ত্র সব বদলে দিচ্ছে। সব যখন বদলাচ্ছে বিজেপি সরকার কেন বদলাবে না?
  • কর্ণাটকের সরকারের বিধায়কদের টাকা দিয়ে কিনে নিচ্ছে বিজেপি। অথচ ওখানকার সরকার সাধারণ মানুষ দ্বারা নির্বাচিত, অথচ বিজেপি সাধারণ মানুষকে সাহায্য করে না।
  • বিজেপি বলেছিল বছরে ২ কোটি লোককে চাকরি দেবে, আর তার বদলে ২০১৮ সালে ২ কোটি লোক বেকার হয়ে গেছে। শুধু মানুষকে ভাওতা আর প্ররোচনা দিয়েছে।
  • এনআরসি-র নাম করে মানুষ নিধন করেছে, অত্যাচার করছে, যা ইচ্ছে তাই চলছে, এই জিনিস বেশি দিন চলতে পারে না। কখনও কখনও মানুষকে এই অত্যাচারের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত নিতে হয়।
  • ইন্দিরা গান্ধী আর শেখ মুজিবর রহমান বাংলাদেশের বিজয় উৎসব পালন করেছিলেন এই ব্রিগেডে। জহরলাল নেহেরু, অটলজি-রা, বামেরা র‍্যালি করেছিলেন। আজ দেশের মানুষকে বিচার দেওয়ার জন্য আমরা এই র‍্যালি করছি। দেশের নতুন ইতিহাস তৈরির জন্য এই গঠবন্ধন। আজ দেশের প্রয়োজনে সবাইকে একসাথে হতে হবে। শহর নয় দেশ গুরুত্বপূর্ণ, এটা মাথায় রাখতে হবে। কালেকটিভ লিডারশীপ খুব গুরুত্বপূর্ণ।
  • কেউ কেউ বলছে নেতা কে হবেন? কেন আমাদের কি নেতার অভাব? আপনার দল leader less হয়ে গেছে তাই আপনার দলে একজনই প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু গঠবন্ধনে আমরা সকলে নেতা, সকলে কর্মী, সকলে অরগানাইজার। আমরা প্রত্যেকে রাজা, প্রত্যেকেই প্রজা, কারণ এটা গণতন্ত্র। আমরা প্রধানমন্ত্রী পরে ঠিক করব। এখন এটা প্রশ্ন নয়।
  • আজ থেকে আমাদের মিটিং শুরু হল, চন্দ্রবাবু নাইডু ওনার রাজ্যে মিটিং ডাকলে যাব, কেজরিওয়াল মিটিং ডাকলে যাব, জম্মু-কাশ্মীরে ফারুক আবদুল্লা-জি মিটিং ডাকলেও যাব।
  • আজ আমরা এখানে মিটিং করছি বলে ওরা দিল্লিতে সব এজেন্সিকে ডেকে নিয়েছে। এর পর কি করবে ঠিক করার জন্য। যা মন চায় করুক। সিবিআই-কে শ্রদ্ধা করি; বিজেপি ওদের সম্মান নষ্ট করে দিয়েছে। সব অফিসার খারাপ নয়, সব জায়গায় কিছু ভালো মানুষও আছে, কিছু খারাপ মানুষও আছে।
  • সিবিআই, ইডি, আরবিআই কে বদনাম করেছে, ব্যাঙ্কগুলোকে শেষ করে দিয়েছে, এরপর আপনারা যদি বিজেপিকে ভোট দেন আপনাদের ব্যাঙ্কে যা টাকা রেখেছেন তা আর ফেরত পাবেন না। বিএসএফ, সিআরপিএফ এদের নিয়েও রাজনীতি করছে। মানুষ মারছে, লিনচিং করছে।
  • আমাদের এক কবি অসমে এক অনুষ্ঠানে গেছিলেন, ৪ ঘণ্টা ধরে তাকে অসম্মান করেছে বিজেপির লোকেরা। আমাদের বাংলায় এসব হয় না।
  • এখন বাংলায় এসে বলে দাঙ্গা লাগিয়ে দাও এই একটাই কাজ ওদের।
  • আমরা বাংলায় রথযাত্রার নামে দাঙ্গা লাগাতে দেব না। জনতার কাছে এই আমার প্রতিশ্রুতি। আমি প্রতিশ্রুতি দিলে তা পালন করি। আমরা যেখানেই সভা করি, ওরা বলে আমরা তার পরে সেখানে সভা করব। আমি ওদের বলি, তোমরা ৩৬৫দিন সভা কর, এখন রাজ্যে ২টো আসন আছে, এর পরে সেদুটোও থাকবে না।
  • বিজেপি বাংলায় আসন না পেলে, বিহারেও পাবে না, উত্তরপ্রদেশে মায়াবতীজি ও অখিলেশ এক হওয়ার ফলে অখানেও পাবে না, জম্মু কাশ্মীরেও ওমর আবদুল্লা ফারুক আবদুল্লা ভালো ফল করবে, দিল্লীতে আপ জিতবে, গুজরাটে হার্দিক-জিগ্নেশকে সাহসের সঙ্গে এগিয়ে যেতে অনুরোধ করব, উত্তর পূর্ব ভারতে ১আসন পাবে কিনা সন্দেহ, সারা দেশের মানুষ মানসিক ভাবে প্রস্তুত বিজেপিকে বিদায় করতে। বিজেপি কারোর কথা শোনে না, কারোকে ধত্যবের মধ্যে ধরে না, গণতন্ত্র মানে না। বিজেপির আচ্ছে দিন আর আসবে না। বিজেপি যে সুযোগ পেয়েছিল, তা হারিয়েছে।
  • অনেক হয়েছে আচ্ছে দিন, এবার বিজেপিকে বাদ দিন। অনেক হয়েছে আচ্ছে দিন, এবার কেন্দ্রকে বদলে দিন। অনেক হয়েছে আচ্ছে দিন, এবার বিজেপিকে পুরো ধারাশায়ী করে দিন। দেশকে এক ও ভালো রাখতে হলে, বিজেপিকে বাদ দিন। দেশের মানুষ, কৃষক, শ্রমিকদের, যুবদের ভালো রাখতে হলে, সব ধর্মকে একসঙ্গে রাখতে বিজেপিকে বাদ দিন। আগামীদিন বিজেপিকে একটাও ভোট দেবেন না। বিজেপি গেলে দেশের মঙ্গল।
  • কে প্রধানমন্ত্রী হবে, সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়, আমরা সকলে চাই বিজেপি যাক। বিজেপি চলে গেলে, তারপর আমরা ঠিক করব কে প্রধানমন্ত্রী হবে। যেই সরকার গড়ুক, ভালো সরকার গড়বে। পাঁচ বছরে এত কাজ করে থাকলে বাড়ি বাড়ি চিঠি পাঠানোর প্রয়োজন কি? প্রবাসী ভারতীয়দের বলছে, ১৫০০০ মানুষকে বলতে বিজেপিকে ভোট দিতে। কেন দেবে? বিজেপি টাকা দিয়ে সব রাজনৈতিক দল ভাঙতে চায়।
  • আমি বিজেপিকে জিজ্ঞেস করতে চাই, আপনারা নিজেদের নেতাদের সম্মান দিয়েছেন? শত্রুঘ্ন সিনহাকে কি সম্মান দিয়েছেন? যে যশোবন্ত সিং অটল বিহারী বাজপেয়ীর সঙ্গে এত কাজ করেছে, তাঁকে কি সম্মান দিয়েছেন? অরুন শৌরীকে সম্মান দিয়েছেন? রাজনাথ সিং কে সম্মান দিয়েছেন? সুষমা স্বরাজকে সম্মান দিয়েছেন? নীতিন গড়করিকে সম্মান দিয়েছেন? নিজের দলকে সম্মান দিয়েছেন? ভোট সামনে তাই এখন আপনারা সম্মিলিত নেতৃত্বের কথা বলছেন, ভোটের পর যদি আপনারা জিতে যান, সকলকে ছুঁড়ে ফেলে দেবেন, এটাই বিজেপির কাজ।
  • আমার জন্মভূমি ভাগাভাগি পছন্দ করে না, ঘৃণা পছন্দ করে না, রক্ত নিয়ে হোলি খেলা পছন্দ করে না, বিভেদ পছন্দ করে না। আমরা জন্ম চাই, মৃত্যু চাই না, সৃষ্টি চাই ধ্বংস চাই না, আমরা ঐক্য চাই।
  • ত্যাগের নাম হিন্দু, ইমানের নাম মুসলমান, প্রেমের নাম ইসাই, আর শিখরা বলিদানের প্রতীক। সারা দেশের মানুষকে নিয়ে যে চলতে পারে সেই দেশের নেতা, যে পারে না, সে নেতা নয়।
  • আগামীদিন, বিজেপি যেখানে মিটিং করবে তার পরের দিন সেখানে মিটিং করবেন। যেখানে কুৎসা রটাবে, পরের দিন ভাল করে রাজনৈতিক উত্তর দেবেন।
  • মানুষকে বিজেপি সর্বনাশের পথে নিয়ে যাচ্ছে। আজ দেশে ২ কোটি লোক বেকার আর আমরা বাংলায় বেকারত্বের হার ৪০% নামিয়ে এনেছি। ওরা বলেছে ২০২২ সালে কৃষকদের আয় দ্বিগুণ করবে আর আমরা এর মধ্যেই তিন গুণ করে ফেলেছি।
  • আর আমরা শুধু একা নই। যে কটা দল বিজেপি-র বিরুদ্ধে লড়াই করছে তারা উন্নয়নের জন্য কাজ করছে। আজ ২৩টা দল ওদের বিরুদ্ধে। আরও ২-৪টে আছে যারা ওদের সমর্থন করবে না। আমরা অপেক্ষা করব। এক সাথে দেশের কাজ করব বলে আমি মনে করি।
  • আমরা বলি লড়তে পারলে লড়, গড়তে পারলে গড়, করতে পারলে কর, আর তা না হলে গদি ছাড়ো। তোমাদের সারা ভারতে কোনও জায়গা নেই।
  • যখন ভারতে নতুন সরকার গঠন হবে, বিজেপি বিদায় হবে, ততক্ষন আমরা আবার ব্রিগেডে মিটিং করব। আর আমি সমস্ত নেতাদের এখন থেকেই আহ্বান জানাচ্ছি, নির্বাচনে জেতার পরে এখানে আবার আসবেন। ভারতে একটা পরিবর্তন আসবে, সেটা কেউ থামাতে পারবে না।
  • আজকে ওরা সংবাদমাধ্যমকে ভয় দেখাচ্ছে। কত লোকের চাকরী খেয়েছে। মনে রাখবেন পরের লড়াইটা দ্বিতীয় স্বাধীনতার যুদ্ধ কারণ আমরা প্রচুর নেতা দেখেছি, কিন্তু ভারতবর্ষে এরকম হিটলার দেখেনি। এরকম ফ্যাসিস্ট কায়দায় দেশ শাসন করতে কাউকে দেখেনি। মানুষের কোনও স্বাধীনতা নেই।
  • তাই, লড়াই লড়াই লড়াই চাই। বিজেপি হঠাও, দেশ বাঁচাও। জয় হিন্দ, বন্দে মাতরম।