Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 7, 2018

Special menu at SFDC restaurants on the occasion of Bhai Phonta

Special menu at SFDC restaurants on the occasion of Bhai Phonta

Do you stay away from your family? Missing your siblings on Bhai Phonta? Worry not. Thanks to the State Fisheries Department, your Bhai Phonta will become special this year. The State Fisheries Development Corporation (SFDC) has arranged a special meal menu on the occasion at Nalban Food Court.

Most SFDC outlets are run by women. They will give Bhai Phonta to customers on that day. Arrangements will be made for dhaan, durba, chandan and other items required for the rituals. Following the traditional rituals, there will be a sumptuous meal to look forward to.

Hilsa, prawns, lobsters, crabs, pabda, koi, rohu are some of the fishes that will be served on that day. The recipes will be traditional Bengali dishes from both sides of the border. ‘Achari bhapa ilish’, a popular dish of Bangladesh will be served.

Two types thalis will be served – Gangaparer thali (with popular dishes of West Bengal) and Padmaparer thali (with dishes from East Bengal). Galdachingrir malaikari, fulkopi diye chingri machher dalna and chalta chutney are some of the dishes that will be common to both thalis.

The special menu will be served from Tuesday itself at the restaurant in Nalban Food Park. Orders can be placed online via the SFDC’s mobile app too, which will be delivered within three hours.

Source: Sangbad Pratidin


নভেম্বর ৭, ২০১৮

ভাইফোঁটার জন্য বিশেষ আয়োজন মৎস্য দপ্তরের

 ভাইফোঁটার জন্য বিশেষ আয়োজন মৎস্য দপ্তরের

দিদি বা বোন নেই বা তাঁরা দূরে থাকেন। ভাইফোঁটার দিন তাই মন খারাপ? ভাইফোঁটায় মন ভাল করার জন্য তৈরী মৎস্য দপ্তর। এবারই প্রথম ভাইফোঁটার আয়োজন করেছে রাজ্য সরকার। মৎস্য দপ্তরের উদ্যোগে নলবন ফুড পার্কে ভাইফোঁটার দিন থাকছে এলাহি ব্যবস্থা।

যেমন ভাইফোঁটা দেওয়া হবে, তেমনই কব্জি ডুবিয়ে রসনাতৃপ্তির জন্য থাকছে জিভে জল আনা নানারকমের পদ। নলবন ফুডপার্ক-সহ দপ্তরের রেস্তোরাঁগুলির প্রায় অধিকাংশই মহিলাদের দ্বারা পরিচালিত। ভাইফোঁটার দিন তাঁরাই ফোঁটা দেবেন অতিথিদের। তার জন্য ধান, দূর্বা, বাটা চন্দনের ব্যবস্থা থাকছে। রেস্তোরাঁতে এলেই মহিলা কর্মীরা স্বাগত জানাবেন। ভাইফোঁটা দেবেন তাঁরা।

ফোঁটা দেওয়ার পর্ব মিটলে থাকবে ইলিশ, চিংড়ি, কাঁকড়া, পাবদা, কই, রুই, পমফ্রেট সব রকমের মাছের দুই বাংলার বিভিন্ন ধরণের রেসিপি থাকবে। পাওয়া যাবে ওপার বাংলায় যশোরের বিখ্যাত ‘আচারি ভাপা ইলিশ’। দুধরণের থালির মধ্যে থাকবে একটি গঙ্গা পারের খালি। দুটি থালিতেই থাকছে, গলদা চিংড়ির মালাইকারি, ফুলকপি দিয়ে চিংড়ি মাছের ডালনা ও চালতা চাটনি। আবার পদ্মাপারের থালিতে কাতলা মাছের ঝোল, পাবদা, কইমাছের বিভিন্ন রেসিপি। আর ইলিশ মাছ তো থাকছেই।

ভাইফোঁটা উপলক্ষে মঙ্গলবার থেকেই খাওয়া-দেওয়ার পর্ব শুরু হয়ে যাচ্ছে নলবন ফুডপার্কে। বসে খাওয়ার পাশাপাশি যাঁরা বাড়িতে ভাইফোঁটা পালন করবেন তাঁরা অ্যাপে অর্ডার দিলে রান্না করা খাবার তিন ঘন্টার মধ্যে বাড়িতে পৌঁছে যাবে।

সৌজন্যঃ প্রতিদিন