Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 13, 2018

Baradih Pahar – new tourist destination in Bankura

Baradih Pahar – new tourist destination in Bankura

From a popular picnic spot, Baradih Pahar in the district of Bankura will soon turn into a tourist spot.

The State Government has taken an initiative to develop this small hill, at whose foothills is the village of Baradih, located along the bank of the river Kangsabati in Sarenga block in southern Bankura. Regular arrival of tourists would also mean employment opportunities for the local population.

The place is a natural paradise. The hill is covered by a jungle of sal and mahua trees, with a narrow path slicing through. This path has been concretised recently by the local administration for the benefit of tourists. Strewn across the hill are stones of various shapes, which add a charm of its own. There is an abundance of birds as well.

A picturesque guest house has been constructed there, and a restaurant too. A submersible pump for ensuring adequate supply of water has also been set up. Thus night stay has been made possible. There is plan to create a children’s park on the hill too. All in all, all facilities are being set up to make Baradih Pahar a popular destination.

Source: Khabar 365 Din


নভেম্বর ১৩, ২০১৮

ঢেলে সাজছে বাঁকুড়ার বড়দি পাহাড়

ঢেলে সাজছে বাঁকুড়ার বড়দি পাহাড়

বড়দি পাহাড়৷ ভিন জেলার পর্যটকদের কাছে এই নাম কিছুটা অপরিচিত থাকলেও বাঁকুড়া জেলার মানুষের কাছে তা আনকোরা নয়৷ দক্ষিণ বাঁকুড়ার সারেঙ্গা ব্লকের কংসাবতী নদীর গায়ে থাকা এই পাহাড়ের গায়ে ফি-বছরই ভিড় জমায় পিকনিকের দল।

এবার সেই পাহাড়কে কেন্দ্র করে গড়ে উঠছে বাঁকুড়ার নতুন ট্যুরিস্ট ডেস্টিনেশন। সরকারি উদ্যোগে বড়দি পাহাড়ে গড়ে উঠছে পর্যটন পরিকাঠামো৷ স্থানীয়রা একে পাহাড় বললেও ভূগোলের ভাষায় বড়দি পাহাড়কে টিলা বলাই ভালো।

উচ্চতা তেমন নয়৷ কিন্তু এর কোলে লুকিয়ে রয়েছে অপার প্রাকৃতিক সৌন্দর্য! গোটা পাহাড়জুড়ে থাকা শাল মহুয়ার জঙ্গলের বুক চিরে চলে গেছে একফালি সরু রাস্তা৷ এতদিন সেই রাস্তা কাঁচা থাকলেও সম্প্রতি পর্যটকদের সুবিধার জন্য সেই রাস্তা কংক্রিটের করা হয়েছে৷ পাহাড়ের কোল ঘেঁসে বয়ে চলেছে কংসাবতী নদী৷

পাহাড়ের বিভিন্ন অংশে ছড়িয়ে থাকা বিভিন্ন আকৃতির পাথর তৈরী করেছে এক রহস্যময় পরিবেশ৷ পাহাড়ের গায়ে গাছে গাছে পাখিদের নাচানাচি দেখতে দেখতে কখন যে পাহাড়ের গা ঘেঁসে রয়ে চলা কংসাবতী নদীর তীরে সূর্য ডুব দেয় তা টের পাওয়া বেশ মুশকিল।

সম্প্রতি এই পাহাড়কে বাঁকুড়ার পর্যটন মানচিত্রে ঠাঁই করে দিতে একগুচ্ছ পরিকল্পনা করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই পাহাড়ের গায়ে পর্যটকদের রাত্রিবাসের জন্য তৈরী করা হয়েছে সুদৃশ্য গেস্ট হাউস৷ পর্যটকদের ইচ্ছে মতো খাবার সরবরাহের জন্য তৈরী করা হচ্ছে রেস্তুরাঁও৷ পাহাড়ের উপর পানীয় জলের অভাব দূর করতে বসানো হয়েছে সাব মার্সিবল পাম্প।