Latest Newsসাম্প্রতিক খবর


November 9, 2018

Bangla to take a leap in quantum computing

Bangla to take a leap in quantum computing

The State Government has been giving a lot of stress on modern aspects of computing and internet-related technologies like cybersecurity, blockchain, internet of things, artificial intelligence, etc.

Quantum computing is one such technology with a lot of potential, especially for building better, faster supercomputers. It is already being researched on and studied at top institutions across the world.

Calcutta University (CU), one of the premier State universities of Bangla, has decided to start courses on the topic. Towards that end, it presented a proposal to the State Government at a recent summit organised by the Information Technology and Electronics Department at the Biswa Bangla Convention Centre in New Town.

According to the proposal, a centre of excellence would be set up, which would have numerous facilities including those for conducting cutting-edge research. Studies would also be conducted and projects undertaken in using quantum computing for solving real-life issues.

A quantum computing knowledge workshop was also held as part of the summit. Also discussed at the summit was how to inspire the best students of Bangla to take up the subject of quantum computing and through it, contribute to the development of the State. Another topic discussed was how to protect related software and hardware from hackers and viruses.

Source: Khabar 365 Din


নভেম্বর ৯, ২০১৮

আন্তর্জাতিক স্তরে বাংলার মেধাকে ছড়িয়ে দিতে উদ্যোগ রাজ্যের

আন্তর্জাতিক স্তরে বাংলার মেধাকে ছড়িয়ে দিতে উদ্যোগ রাজ্যের

আগামী দিনে সুপার কম্পিউটারের জন্য অন্যতম প্রয়োজনীয় অবদান হল কোয়ান্টাম কম্পিউটিং। যার সাহায্যে বিশ্বের এই অভিনব কম্পিউটিং সিস্টেমকে আরও দ্রুত ছড়িয়ে দেওয়া হবে। সেই কারণে, এবার কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অফ ইনফরমেশন অ্যান্ড টেকনোলজির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছে রাজ্যের তথ্য ও প্রযুক্তি দপ্তর।

নিউটাউনের কনভেনশন সেন্টারে তথ্য প্রযুক্তি দপ্তরের তরফে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কলকাতা বিস্ববিদ্যালয়ের তরফে সেই প্রাথমিক আবেদনপত্র জমা দেওয়া হয়। এই আবেদনপত্রে উল্লেখ আছে কোয়ান্টাম কম্পিউটিং নিয়ে সেন্টার অফ এক্সসেলেন্স গড়ে তোলা হবে। এক ছাতার তলায় মিলবে রিসার্চ করার মোট সুবিধা থেকে শুরু করে এই বিষয়ে কাজ করার সুযোগ। এর সঙ্গেই বাস্তবে কিভাবে এই কোয়ান্টাম কম্পিউটিংকে ব্যবহার করা যায় সেই নিয়েও এই জায়গাতেই ব্যবস্থা গড়ে তোলা হবে। তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের অতিরিক্ত মুখ্য সচিব বলেন, ‘আমাদের কাছে আবেদনপত্র আসা থেকেই আমরা এই বিষয়ে আলোচনা শুরু করেছি। রাজ্য অনুমোদন দিলেই আগামী দিনে এই কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে।’

এই অনুষ্ঠানে আয়োজিত হয়েছিল কোয়ান্টাম কম্পিউটিং নলেজ ওয়ার্কশপেরও। সেখানেই রাজ্যের মেধাকে কীভাবে এই নতুন ব্যবস্থাপনার সঙ্গে আত্মিকতা বাড়িয়ে প্রশিক্ষণের সাহায্যে তাদের শিক্ষিত করে বিশ্বের কাছে একটি নিদর্শন তৈরী করা যায় টা নিয়ে আলোচনা হয়। কারণ, সুপার কম্পিউটারের প্রোগ্রামিং করার জন্য কোয়ান্টাম সম্বন্ধে জ্ঞান প্রয়োজন। তার সঙ্গে এই ধরনের অপারেটিং সফটওয়্যার ও হার্ডওয়্যারকে কীভাবে হ্যাকার ও ভাইরাসের হাট থেকে রক্ষা করা যায় তা নিয়েও আলোচনা করা হয়।

সৌজন্যেঃ খবর ৩৬৫ দিন